এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > অনাস্থা হেরে আমাদের ‘বাজিগর’ তত্ত্বে যাঁরা হেসেছিলেন, তাঁরা কোথায়? প্রশ্ন অর্জুন শিবিরের

অনাস্থা হেরে আমাদের ‘বাজিগর’ তত্ত্বে যাঁরা হেসেছিলেন, তাঁরা কোথায়? প্রশ্ন অর্জুন শিবিরের


লোকসভা নির্বাচনের মুখে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতেই, ভাটাপাড়া পুরসভায় অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনে তৃণমূল। সেই অনাস্থা প্রস্তাবের আগে অর্জুন শিবিরের দাবি ছিল ভাটপাড়ার ৩৫ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ১ জন মারা গেছেন, ১ জন সিপিএমের – বাকিদের মধ্যে ৮ জন বাদে কেউই নাকি তৃণমূলের সঙ্গে নেই। কিন্তু অনাস্থা প্রস্তাবে দেখা যায় অর্জুন সিং হেরে যান ১১-২২ ফলাফলে। তৃণমূল শিবির জোরালো ভাবে প্রচার করতে থাকে যে নিজের খাসতালুকে পুরসভা বাঁচাতে পারে না, সে কিভাবে ব্যারাকপুরে লোকসভা জিতবে।

কিন্তু, অর্জুন সিং শিবিরের দাবি ছিল – সেই হার আদতে ‘কৌশলী হার’। সেই মুহূর্তে অর্জুন সিংয়ের পাখির চোখ ব্যারাকপুর লোকসভা নির্বাচনে জয় – আর সেই জয় পেতে নাকি শাসকদলের অন্দরে থেকেও অনেক নেতা কর্মীই তাঁকে সাহায্য করবেন। এই অবস্থায়, ভাটপাড়া পুরসভা বাঁচাতে গিয়ে, যে সব কাউন্সিলররা অর্জুনবাবুর পাশে আছেন, তাঁরা যদি সবাই সেদিন ভোট দিয়ে অনাস্থা বাঁচাতেন, তাহলে ‘অন্যরকম’ রাজনৈতিক অসুবিধায় পড়তে হত তাঁদের।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

ফলে, সেদিন ভাটপাড়া পুরসভার ‘ছোট বাজিতে’ হেরে ব্যারাকপুর লোকসভার ‘বড় বাজিতে’ মাত দেওয়ার জন্য সেটা ছিল ‘কৌশলী পদক্ষেপ’। অর্জুন সিং ঘনিষ্ঠ এক নেতার কথায়, সেদিন চাপ দিয়েই কাউন্সিলরদের ভোট দেওয়ানো হয়েছে, বাস্তবে ৩৩ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ৮ জন বাদ দিয়ে কেউই তৃণমূলের পক্ষে ছিল না। আর তাই বাজি হেরেও যে জেতে তাকে কিন্তু ‘বাজিগরই’ বলা হয়, সুতরাং ২৩ শে মে পর্যন্ত অপেক্ষা করুন, খেলা এখনও অনেক বাকি!

আমরা সেই খবর প্রকাশ করতেই (প্রিয় বন্ধু মিডিয়া, ৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ – ভাটপাড়াতে বাজি হেরেও ‘বাজিগর’ তত্ত্বে ‘চমক’ অর্জুন সিং শিবিরের) অর্জুন শিবিরের সঙ্গে আমাদেরও তীব্র অশ্লীল আক্রমন করেন একশ্রেণীর পাঠক। এর আগে ২৩ তারিখে বাজিমাত করেছিলেন ‘বাজিগর’ অর্জুন সিং – আর, গতকাল দেখা যায় ভাটাপাড়া পুরসভায় ৭ জন বাদে সকলেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন – অর্থাৎ আরস্যুন শিবিরের অঙ্ক যে কতটা যথার্থ ছিল আজ প্রমাণিত। আর তাই অর্জুন সিং ঘনিষ্ঠ শিবির প্রশ্ন তুলেছেন – অনাস্থা হেরে আমাদের ‘বাজিগর’ তত্ত্বে যাঁরা হেসেছিলেন, তাঁরা আজ কোথায়? আমাদের সেদিন ‘বিজেপির দালাল’ থেকে শুরু করে অশ্লীল গালি দেওয়া পাঠকরা আজ কোথায়? প্রশ্নটা আমাদেরও!

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!