এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ত্রিপুরায় ‘পরিবর্তন’ নাকি ‘প্রত্যাবর্তন’? কি বলছে গোয়েন্দা রিপোর্ট?

ত্রিপুরায় ‘পরিবর্তন’ নাকি ‘প্রত্যাবর্তন’? কি বলছে গোয়েন্দা রিপোর্ট?

ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচনের দিন যত এগিয়ে আসছে তত চড়ছে রাজনৈতিক পারদ। একদিকে সমস্ত বিরোধীদের কোনঠাসা করে অষ্টম বামফ্রন্ট গড়ার মরিয়া প্রচেষ্টা, তো অন্যদিকে কিছুদিন আগেও ত্রিপুরাতে হালে পানি না পাওয়া বিজেপির প্রধান বিরোধী মুখ হয়ে উঠে অসাধ্য-সাধন করে বাম সরকারকে প্রতিহত করার উদ্যোগ। সবে মিলিয়ে বেশ জমজমাট রাজনৈতিক লড়াইয়ের আবহ। এর মাঝেই সামনে আসছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের করা জনমত সমীক্ষা। সেখানে কোথাও বিজেপির ক্ষমতা দখল করে পরিবর্তনের ইঙ্গিত তো কোথাও বামেদের ক্ষমতা ধরে রেখে প্রত্যাবর্তনের।

এর মাঝেই কলকাতার এক ওয়েব পোর্টালের প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ত্রিপুরা নির্বাচন নিয়ে তাদের হাতে এসেছে ‘গোয়েন্দা রিপোর্ট’ আর সেই রিপোর্ট অনুযায়ী ত্রিপুরাতে হতে চলেছে ‘কাঁটে কি টক্কর’, অর্থাৎ একদিকে ত্রিপুরা জুড়ে চলছে পরিবর্তনের প্রবল হাওয়া, অন্যদিকে বামদের শক্ত ঘাঁটিগুলো এখনো দুর্ভেদ্য। আর তাই ৬০ আসন বিশিষ্ট ত্রিপুরা বিধানসভায় ফলাফল নির্ধারণ করে দেবে মাত্র ৮-১০ টি আসন। ওই আসন গুলিতে যারা শেষ হাসি হাসবে তারাই দায়িত্ত্ব পাবে আগামী ৫ বছর ত্রিপুরাকে শাসন করার। সবথেকে বড় কথা ওই রিপোর্ট অনুযায়ী এবারের ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচনে শাসক ও বিরোধীদলের মধ্যে বিশেষ কোনো ফারাক থাকবে না। বামফ্রন্ট বা বিজেপির মধ্যে যে দলই ক্ষমতায় আসুক ৩১-৩৫ টি আসন তাদের হাতে থাকবে অপরদিকে বিরোধীপক্ষের হাতে থাকবে ২৫-২৯ টি আসন। সবমিলিয়ে গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুযায়ী ত্রিপুরা নির্বাচন নাকি জমজমাট রহস্যে ভরপুর!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!