এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > “ভুলটা আমার ব্যক্তিগত” বিজেপি যোগ নিয়ে ভুলস্বীকার মুকুল পুত্রের, জল্পনা তুঙ্গে

“ভুলটা আমার ব্যক্তিগত” বিজেপি যোগ নিয়ে ভুলস্বীকার মুকুল পুত্রের, জল্পনা তুঙ্গে

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কিছুটা খারাপ ফলাফল করার পরই দিকে দিকে বিজেপি চাণক্য মুকুল রায়ের হাত ধরে তৃণমূলের অনেক জনপ্রতিনিধি গেরুয়া শিবিরে নাম লেখান। কিন্তু বাবা মুকুল রায় দেড় বছর আগে বিজেপিতে নাম লেখালেও ছেলে শুভ্রাংশু রায় তৃণমূলের থাকায় প্রবল জল্পনার সৃষ্টি হয়েছিল।

যা নিয়ে সমালোচকদের আক্রমণের মুখে পড়েছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।অনেকেই বলেছিলেন, যিনি নিজের ছেলেকে সামলাতে পারেন না! তিনি আবার নাকি তৃণমূলকে সরাবেন! তবে বরাবরই এই প্রসঙ্গে নীরবতা পালন করে এসেছেন সেই মুকুল রায়। তিনি বলেছেন, “সময় আসবে, অপেক্ষা করুন।”

অবশেষে নিজের কৌশলী বুদ্ধিমত্তায় ঠিক নির্বাচনের ফলাফলের পরই টালমাটাল পরিস্থিতিতে সেই বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক তথা নিজের পুত্র শুভ্রাংশু রায়কে বিজেপির পতাকা তুলে দেন মুকুল রায়। আর এরপর থেকেই বাবা, ছেলে মিলে রাজনৈতিকভাবে তৃণমূলকে শেষ করে দেওয়ার শপথ নেন। কিন্তু এত পর্যন্ত সবকিছু ঠিকঠাক থাকলেও সেই মুকুল রায় এবং শুভ্রাংশু রায়ের হাত ধরে যে কাঁচরাপাড়া এবং হালিশহর পৌরসভার তৃণমূল কাউন্সিলররা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন, সেই কাউন্সিলররা আবার বিজেপিতে ফিরে যেতে শুরু করেছেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

যা প্রবল অস্বস্তিতে ফেলেছে গেরুয়া শিবিরকে। যদিও বা মুকুল রায় এই ব্যাপারে রাজনৈতিক কৌশল রয়েছে বলে দাবি করছেন। তবে এবার সেই বীজপুরের বিধায়ক বিজেপির শুভ্রাংশু রায়ের গলায় শোনা গেল অন্য সুর। সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে শুভ্রাংশু রায় বলেন, “কিছু মানুষকে বিশ্বাস করা আমার মস্ত বড় ভুল হয়ে গিয়েছে। এজন্য কাউকে দোষ দিচ্ছি না। কারণ ভুলটা আমার ব্যক্তিগত।” আর এই কথাতেই এবার শুরু হয়েছে জল্পনা।

কোন ভুলের কথা বললেন শুভ্রাংশু রায়! তাহলে কি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসাই তার ভুল হয়েছে! নাকি এর পেছনে রয়েছে অন্য কোনো কারণ! রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ বলছেন, যে সমস্ত কাউন্সিলার তৃণমূল থেকে বিজেপিতে এসেছিলেন, তারাই আবার তৃণমূলে ফিরে গিয়েছেন। আর সেই সমস্ত কাউন্সিলররাই তৃণমূল ফিরে যাওয়ায় তাদের বাছতে ভুল হয়েছিল – এই কথাই বোঝাতে চেয়েছেন বীজপুরের এই বিজেপি বিধায়ক।

তবে নেটিজনদের পক্ষ থেকে অবশ্য দাবি করা হচ্ছে, আসলে বিজেপিতে গিয়ে এখন হাঁসফাঁস অবস্থা শুভ্রাংশুর। আর তাই তো সেই দলে যাওয়া ভুল হয়েছে এই কথাই পরোক্ষে বোঝাতে চেয়েছেন তিনি। যদিও বা দলবদলকারী কাউন্সিলরদের প্রসঙ্গে শুভ্রাংশু রায় বলেন, “যারা ফিরে যাচ্ছেন তাদের ছাড়াই বিজেপি প্রার্থী এই কেন্দ্রে ভোটে জিতেছিলেন। অতএব দলছুটরা তৃণমূলে ফিরে যাওয়াতেও বিজেপি কোনো চাপের মুখে পড়বে না।” তবে ভুল স্বীকার বলতে কি বোঝাতে চাইলেন বিজেপির চাণক্য মুকুল রায়! এখন সেই রহস্য উন্মোচনেই তাকিয়ে রয়েছেন সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!