এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > চলছে বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ, ইতিমধ্যেই হিংসার বলি এক হেভিওয়েট নেতা

চলছে বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ, ইতিমধ্যেই হিংসার বলি এক হেভিওয়েট নেতা

চলছে বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচন – দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী স্থির করার লক্ষ্যে। দেশের ৩০০ টি নির্বাচনী আসনের মধ্যে আজ ভোটগ্রহণ হবে ২৯৯ টি আসনে। জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের চার সমর্থকের মৃত্যুর জেরে ঝেনাইডাহ ৩ নম্বর কেন্দ্রের ভোট পিছিয়ে আগামী ২৭ জানুয়ারি করে দিয়েছে বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন।

মোটের উপর শান্তিপূর্ণ ভোট চললেও বিচ্ছিন্ন হিংসার ঘটনা সামনে আসছে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। সকালে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার পরেই, রাঙামাটিতে আওয়ামি লীগ ও বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে গন্ডগোল বাঁধে। বিএনপি সমর্থকদের লাঠির আঘাতে মৃত্যু হয়েছে আওয়ামি লীগের এক যুবনেতার, ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০ জন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিকে দেশের নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে করার জন্য বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের তরফে ছয় লক্ষ নিরাপত্তাকর্মী, কয়েক হাজার সেনা এবং আধা সামরিক জওয়ানের কড়া নজরদারিতে নির্বাচন করা হচ্ছে। অন্যদিকে, বাঁশখালির একটি বুথে পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে এক বিএনপি সমর্থকের বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যেই, কোনও রকম গুজব বা অশান্তি ছড়ানো রুখতে রবিবার মধ্যরাত পর্যন্ত মোবাইল এবং ইন্টারনেট পরিষেবা স্থগিত রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, আজ ভোটগ্রহণ শেষ হয়ে গেলেই ভোটগণনার কাজ শুরু হয়ে যাবে। মধ্যরাত বা কাল সকালের মধ্যেই নিশ্চিত হয়ে যাবে বাংলাদেশের পরবর্তী সরকার পরিচালনার দায়িত্ত্ব কাকে দিতে চলেছেন বাংলাদেশের প্রায় সাড়ে দশ কোটি ভোটার। অন্যদিকে, ভোটদান প্রক্রিয়া শুরু হতেই ঢাকা সিটি সেন্টারের ভোটবুথের প্রথম ভোটার হিসেবে ভোট দেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!