এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > 2014-এর থেকে বালুরঘাটে ভোট বাড়ল অনেকটাই – শেষ হাসি হাসবে কে? হিসেব কষছে সব পক্ষই

2014-এর থেকে বালুরঘাটে ভোট বাড়ল অনেকটাই – শেষ হাসি হাসবে কে? হিসেব কষছে সব পক্ষই

গত মঙ্গলবার ভোট পর্ব সম্পন্ন হয়েছে। কে জিতবে, আর কেইবা পরাজয় স্বীকার করবে! তা চূড়ান্ত হবে আগামী 23 মে গণনাপর্বের দিনই। তবে কৌতূহল, উদ্দীপনা এবং আগ্রহকে ধরে রাখতে পারছেন না কোনো রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরাই। আর তাইতো মোট ভোট শতাংশের হার দেখে অনেকেই বিশ্লেষণ করতে শুরু করেছেন যে, এবারের নির্বাচনে ঠিক কি হতে চলেছে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে।

যদিও বা ভোট শতাংশের হার দেখে জয় বা পরাজয়ের ব্যাপারটি কিছুটা হলেও নির্ণয় করা গেলেও তা চূড়ান্ত হয় না। তবুও শেষ মুহূর্তে নিজেদেরকে এগিয়ে রাখছে এই কেন্দ্রের সমস্ত রাজনৈতিক দলই। সূত্রের খবর, বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের 14 লক্ষ 27 হাজার 567 জন ভোটারের মধ্যে এবারে ভোট পড়েছে 11 লক্ষ 95 হাজার 381 টি। অর্থাৎ গত 2014 সালে এই কেন্দ্রে যেখানে ভোটের হার ছিল 83 শতাংশ, এবারে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে 84.4 শতাংশে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

আর ভোটের শতাংশের হার এভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় আশা-প্রত্যাশা রাখতে শুরু করেছে সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলোই। ইতিমধ্যেই গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের ভোটপর্ব শেষ হয়ে যাওয়ার পর জেলার বিভিন্ন বুথ থেকে ইভিএম ও ভিভিপ্যাডগুলো কঠোর নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে বালুরঘাট কলেজের স্ট্রংরুমে এনে রাখা হয়। রাত থেকে এই ইভিএম বা ভিভিপ্যাডগুলো সেই স্ট্রংরুমে ঢোকানোর কাজ শুরু হলে তা শেষ হয় বুধবার সকাল 11 টা নাগাদ। আর এই ইভিএমগুলো স্ট্রংরুমে ঢোকানোর সময় উপস্থিত ছিলেন সমস্ত রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের নির্বাচনী এজেন্টরা।

আর এই ভিভিপ্যাড এবং ইভিএমগুলোর নিরাপত্তার জন্য সেখানে ক্লোজ সার্কিট টেলিভিশন ক্যামেরার মাধ্যমে যেমন নজরদারি চলছে, ঠিক তেমনই আধাসেনাও মোতায়েন করা হয়েছে। আর বালুরঘাট কলেজের এই বদ্ধ ঘরেই রয়েছে শাসক-বিরোধী সমস্ত দলের মোট 13 জন প্রার্থীর ভাগ্য। এদিন এই প্রসঙ্গে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক বলেন, “বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের স্ট্রংরুম বালুরঘাট কলেজে করা হয়েছে। ভোট-পরবর্তী ইভিএম এবং ভিভিপ্যাড সেখানে রাখা হয়েছে। নিরাপত্তার জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনী রয়েছে। আমরা সিসিটিভির মাধ্যমে 24 ঘন্টা নজরদারি চালাচ্ছি।”

এদিকে মঙ্গলবার ভোটপর্ব শেষ করে ফেরার পথে বংশিহারি ব্লকের পাঠানপাড়ায় ভোট কর্মীদের একটি গাড়ি উল্টে যায়। যেখানে আহত হন গাড়িতে থাকা 12 জন ব্যক্তি। তবে গাড়িতে থাকা ইভিএমের কোনো ক্ষতি হয়নি বলেই জানা গেছে। সব মিলিয়ে বালুরঘাট কলেজের স্ট্রংরুমে বন্দি বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের মোট 13 জন প্রার্থীর ভাগ্য। এখন কে শেষ হাসি হাসে তা দেখবার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে আগামী 23 মে পর্যন্ত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!