এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ এবার অনলাইনেও, যুগান্তকারী পদক্ষেপ নির্বাচন কমিশনের

ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ এবার অনলাইনেও, যুগান্তকারী পদক্ষেপ নির্বাচন কমিশনের

নির্বাচন প্রক্রিয়াকে স্বচ্ছ করতে ইতিমধ্যেই নানা ইতিবাচক পদক্ষেপ গ্রহন করেছে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন। এবার তাঁদের লক্ষ্য এই ভোট প্রক্রিয়ায় যেন কারও নাম বাদ না যায়। আর তাই এবারে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে এনভিএসপি পোর্টাল এবং ইআরনেট সিষ্টেম চালু করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকে ভোটার তালিকা সংশোধনের সময় বুথে বসবেন বুথ লেবেল অফিসারেরা। আর সেই বুথে গিয়েই ৬, ৭ ও ৮ নং ফর্ম জমার পর তা খতিয়ে দেখে ইআরওনেট সিষ্টেমে তা অনলাইনে ডাউনলোড করবেন অফিসাররা। আর এই পদ্ধতির পুরোটাই দিল্লীতে বসেই কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের কর্তারা কোথায় কত নাম উঠল এবং বাদ গেল তার পুরোটাই দেখতে পাবেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর তাই এই আধুনিক নিয়মের সঙ্গে সকলকে পরিচিত করাতে ও এই সিষ্টেমের ব্যাপারে সকলকে প্রশিক্ষন দিতে সোমবার রাজ্যে আসছেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার সন্দীপ সাক্সেনার নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি দল। জানা গেছে, এই কেন্দ্রীয় দল দুদিন ধরে রাজ্যের নির্বাচনের কাজকর্মের সাথে যুক্ত বিডিও, যুগ্ম বিডিও, এসডিও, এডিএম, জেলাশাসকদের প্রশিক্ষন দেবেন।

কিন্তু এই ভোটার তালিকায় নাম তোলার সময়সীমা ঠিক কতদিন থাকবে? জানা গেছে, এরজন্য এবারে দুমাস সময় নির্ধারিত হয়েছে। আগামী ১ লা সেপ্টেম্বর থেকে ৩১ শে অক্টোবর পর্যন্ত নাম তোলা, সংশোধন বা বাতিল করার সুযোগ থাকবে। নির্বাচন কমিশন সূত্রের খবর, এই ভোটার তালিকায় নাম তোলার জন্য যাঁদের ২০১৯ সালের ১ লা জানুয়ারী ১৮ বছর বয়স হবে তাঁরাই অগ্রাধিকার পাবেন।

এরপর একমাস ধরে শুনানির পর আগামী বছরের ৪ ঠা জানুয়ারী নতুন ভোটার তালিকা প্রকাশের ওপর ভিত্তি করেই হবে লোকসভা ভোট। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নির্বাচন কমিশনের এই পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়েছে রাজনৈতিক মহলের বৃহদংশ। সবমিলিয়ে, আগামী বছরের লোকসভা সাধারণ নির্বাচনকে ঘিরে বেশ সাজো সাজো রব এখন নির্বাচন কমিশনে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!