এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > লোকসভার আগে দুর্নীতি প্রশ্নে বড় জয় নরেন্দ্র মোদী সরকারের – কূটনৈতিক চালে বিজয় মালিয়াকে প্রত্যার্পনে রাজি ব্রিটেন

লোকসভার আগে দুর্নীতি প্রশ্নে বড় জয় নরেন্দ্র মোদী সরকারের – কূটনৈতিক চালে বিজয় মালিয়াকে প্রত্যার্পনে রাজি ব্রিটেন

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন – তার মধ্যে অন্যতম ছিল দুর্নীতিমুক্ত ভারত। কিন্তু তাঁর আমলেই বিজয় মালিয়া থেকে নীরব মোদী হয়ে মেহুল চোকসি – সকলেই হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যাঙ্ক ঋণ নিয়ে বিদেশে পালিয়ে গিয়েছিলেন।

ফলে বিরোধীরা প্রবল আওয়াজ তুলতে শুরু করে – কোথায় দুর্নীতি মুক্ত ভারত? উল্টে নরেন্দ্র মোদী তো প্রকারান্তরে এই সব ঋণখেলাপিদের বিদেশে পালতে সাহায্য করছেন! বিজেপি এবং নরেন্দ্র মোদী যতই দাবি করুন – তিনি দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করতেই এঁরা দেশ ছেড়ে পালাচ্ছেন! কিন্তু, সাধারনের কাছে কোথাও গিয়ে বিরোধীদের কথাই যেন বিশ্বাসযোগ্য ঠেকছিল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না – তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

কিন্তু, এবার বিজয় মালিয়াকে ভারতে ফিরিয়ে আনায় বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। এর আগে ব্রিটেনে গিয়ে আশ্রয় নেওয়ায় বিজয় মালিয়াকে দেশে ফিরিয়ে আনা প্রায় যখন অসম্ভব মনে হচ্ছিল, ঠিক তখনই, কূটনৈতিক স্তরে ভারত প্রবলভাবে চাপ সৃষ্টি করতে শুরু করে। ফলে, বিজয় মালিয়ার প্রত্যার্পনের পক্ষে রায় আসার সম্ভবনা প্রবল বলে মনে করছিলেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রসঙ্গত, এক বছর আগে লন্ডনে গ্রেফতার হন বিজয় মালিয়া। এর পর গত বছর ডিসেম্বর থেকে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাঁর বিচার শুরু হয়। ভারত প্রত্যার্পনের দাবি তুললে, বিজয় মালিয়া অভিযোগ করেন স্বাস্থ্যকর জেল নেই এ দেশে! ফলে, তাঁর জন্য বিশেষ জেলের ব্যবস্থার আশ্বাসও দেওয়া হয় ভারতের তরফ থেকে। আর এরপরেই, আর ‘বাঁচা যাবে না’ বুঝেই ১০০% ঋণ মিটিয়ে দিতে উদ্যোগী হয়েছিলেন বিজয় মালিয়া।

কিন্তু, আজ এক ঐতিহাসিক রায়ে ব্রিটেনের আদালত জানিয়ে দিল যে, বিজয় মালিয়াকে ভারতে ফেরাতে কোন আপত্তি নেই তাদের। এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছে সিবিআই এবং সিবিআইয়ের যুগ্ম অধিকর্তা এ সাই মনোহরের নেতৃত্বে সিবিআই এবং ইডির যৌথ একটি দল ব্রিটেনের উদ্দেশ্যে রওনা হতে চলেছে। তবে, আজকের রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে অ্যাপিল করার সুযোগ থাকছে বিজয় মালিয়ার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!