এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > উত্তরপ্রদেশে শেষ হাসি হাসবে কে? গেরুয়া শিবির নাকি মহাজোট?

উত্তরপ্রদেশে শেষ হাসি হাসবে কে? গেরুয়া শিবির নাকি মহাজোট?

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলেন, ভারতবর্ষের কেন্দ্রের মসনদ সেই রাজনৈতিক দলের দখলেই থাকে যে রাজনৈতিক দল গোবলয়ে নিজের আধিপত্য বিস্তার করতে‌। আর তাইতো এবারের আসন্ন 2019 র লোকসভা নির্বাচনের আগে সেই গোবলয় উত্তরপ্রদেশ ঠিক কার দখলে থাকবে তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। কারণ সারা ভারতবর্ষে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে সরাতে ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে সমস্ত বিরোধী দলকে নিয়ে তৈরি হয়েছে বিরোধী মহাজোট।

যেখানে রয়েছে সমস্ত রাজ্যের বিজেপি বিরোধী আঞ্চলিক দলগুলো। এদিক থেকে উত্তর প্রদেশ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ এখানে বিজেপি বিরোধী দল হিসেবেই পরিচিত অখিলেশ সিং যাদবের সমাজবাদী পার্টি এবং মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদী পার্টি। কংগ্রেসকে নিয়ে বিরোধী মহাজোট তৈরি হলেও সেই কংগ্রেসকে নিজেদের বৃত্তের বাইরে রেখেই এই উত্তরপ্রদেশে অখিলেশ-মায়াবতী অর্থ্যাৎ বুয়া-বাবুয়ার জোট হয়েছে। যার জেরে এখানে একদিকে যেমন এই বুয়া-বাবুয়ার জোটে কিছুটা চাপে পড়েছে পদ্ম শিবির, ঠিক তেমনি এখানে স্বস্তিতে নেই হাত শিবিরও।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জোট ফর্মুলাকে মান্যতা দিয়ে বিরোধীদের একের এর বিরুদ্ধে এক প্রার্থী দিতে সেখানে এই মায়াবতী এবং অখিলেশের জোট তৈরি হয়েছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। যা কেন্দ্রের শাসক দলকে অনেকটাই চাপে ফেলতে পারে।

প্রসঙ্গত, সারা দেশের অন্যান্য রাজ্যের থেকে উত্তরপ্রদেশের লোকসভা আসনের সংখ্যা অনেকটাই বেশি। 80 আসনের এই লোকসভায় কি সব থেকে বেশি সংখ্যক আসন দখল করে কেন্দ্রের মসনদ দখল করতে সক্ষম হয় সেদিকেই তাকিয়ে এখন সকলে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, সম্প্রতি দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যু চলে যাওয়ায় এই গোবলয়ে কিছুটা হলেও সমর্থন কমেছে বিজেপির।

এমনকি হিন্দুত্বের পোস্টার বয় হিসেবে পরিচিত উত্তর প্রদেশের বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে উঠছে নানা অভিযোগ। উত্তরপ্রদেশের নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক অনেকটাই ধাক্কা খাবে এই আশঙ্কায় বাংলা, উড়িষ্যার মত রাজ্যগুলির দিকে নজর দিচ্ছে বিজেপি। আর বিজেপির এই দূর্বলতার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এখন মায়াবতী এবং অখিলেশের জুটি পুরোদমে উত্তরপ্রদেশ থেকে বেশি সংখ্যক লোকসভা আসন নিজেদের দখলে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

তবে শেষ পর্যন্ত কার মুখে অক্ষত থাকবে হাসি তা দেখার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে আগামী লোকসভা নির্বাচনের ভোট বাক্স খোলা পর্যন্ত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!