এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এবার উত্তরবঙ্গে বিজেপির চাপে বেকায়দায় করল তৃণমূল, দুর্নীতির অভিযোগ তৃণমূল নেতানেত্রীর বিরুদ্ধে!

এবার উত্তরবঙ্গে বিজেপির চাপে বেকায়দায় করল তৃণমূল, দুর্নীতির অভিযোগ তৃণমূল নেতানেত্রীর বিরুদ্ধে!

গত লোকসভা ভোটে উত্তরবঙ্গে বিজেপি অত্যন্ত ভাল ফলাফল করেছিল। চাপে পড়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। শাসকদল উপলব্ধি করেছিল, নিচুতলার নেতাদের দুর্নীতির জন্যই তাদের এই ফলাফল হয়েছে। যার পরবর্তীতে দলের নেতাদের দুর্নীতি আটকাতে কড়া টনিক দেয় তৃণমূল নেতৃত্ব। অনেকেই মনে করেছিল, এর ফলে হয়ত তৃণমূল কংগ্রেসের সুদিন আসবে। কিন্তু দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কড়া নির্দেশের পর উপরে উপরে স্বচ্ছ ভাবমূর্তি বজায় রেখেছিলেন তৃণমূল নেতারা।

কিন্তু ভেতরে ভেতরে যে তারা দুর্নীতি এবং স্বজনপোষণকে অব্যাহত রেখেছিলেন, তা কার্যত এবার প্রমাণিত হয়ে গেল। অনেকেই ভেবেছিলেন, দলের শীর্ষ নেতাদের কড়া নির্দেশের পর তৃণমূল নিচুতলার জনপ্রতিনিধিরা নিজেদের সমঝে নেবেন। যার ফলে উত্তরবঙ্গের অনেক জায়গাতেই বিজেপির দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে তৃণমূলের দিকে আসতে শুরু করেছিলেন একাংশ। আর সামনে পৌরসভা নির্বাচনের মুখে বিজেপি কুপোকাত হওয়ায় তৃণমূল ভেবে নিয়েছিল যে, তারা এবার পৌরসভা নির্বাচনে ভালো ফল করবে।

কিন্তু নির্বাচনের দিন এখনও ঠিকমতো ঘোষণা না হওয়ার আগেই যেভাবে তৃনমূলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলল বিজেপি, তা নিঃসন্দেহে শাসক দলকে প্রবল অস্বস্তিতে ফেলে দিল। কিন্তু কী সেই অভিযোগ! জানা গেছে, বেআইনিভাবে সরকারি প্রকল্পের ঘর নেওয়ার অভিযোগ তুলে এবার বালুরঘাট পৌরসভার তৃণমূলের বিদায়ী ভাইস চেয়ারম্যান বেবি বর্মন সহ একাধিক তৃণমূলের নেতা, নেত্রীর বিরুদ্ধে জেলা শাসকের কাছে অভিযোগ দায়ের করল ভারতীয় জনতা পার্টি।

বিজেপির অভিযোগ, হাউস ফর অল প্রকল্পে বালুরঘাটে তৃণমূলের বিদায়ী চেয়ারম্যান বেবি বর্মনের স্বামী এবং মা ঘর পেয়েছে। আর নেতা-নেত্রীদের নিজেদের লোকদের পাইয়ে দেওয়া ঘর নিয়ে এখন দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হয়েছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে বালুরঘাট পৌরসভার বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর চেয়ারম্যানের দ্বারস্থ হয়েছিল বিজেপি। কিন্তু তা সত্ত্বেও কোনো সুফল পাওয়া যায়নি বলে দাবি তাদের। আর এর পরিপ্রেক্ষিতেই বৃহস্পতিবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার জেলাশাসককে স্মারকলিপি দিল ভারতীয় জনতা পার্টি।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে বালুরঘাটে বিজেপির টাউন মন্ডলের সভাপতি সুমন বর্মন বলেন, “যাদের মাথার উপর ছাদ বা ঘর নেই, তাদের জন্য এই প্রকল্প। কিন্তু বিদায়ী ভাইস চেয়ারম্যান বেবি বর্মনের মা, স্বামী এবং অন্য 4 জন তৃণমূল নেতারা সরকারি ঘর পেয়েছে। আর যারা সত্যি ঘর পাওয়ার যোগ্য, তারা বঞ্চিত। তৃণমূলের চাপে এসডিও কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে ঘটনাটিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে। আমরা 24 ঘন্টার মধ্যে ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি জানিয়েছি।”

আর নির্বাচনের আগে যখন উত্তরবঙ্গে তৃণমূল ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছিল, সেই সময় পৌরসভা নির্বাচনের মুখে বালুরঘাটে তৃণমূলের বিদায়ী ভাইস চেয়ারম্যানের দুর্নীতি নিয়ে বিজেপির প্রতিবাদে তৃণমূল যে প্রবল চাপে পড়ল, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল। একাংশ বলছেন, বালুরঘাটে পৌরসভার ক্ষমতা পেয়ে তৃণমূলের নেতা নেত্রীরা নিজেদের সম্পত্তি বৃদ্ধি করার জন্য মনোযোগী হয়েছিলেন। আর এবার পৌরসভা নির্বাচনের মুখে নেতা-নেত্রীদের সেই দুর্নীতি ফাঁস হয়ে গিয়েছে। এখন দেখার বিষয় যে, তৃণমূলের এই দুর্নীতি বিজেপি ফাঁস করে দেওয়ায় তৃণমূল আগামী পৌরসভা ভোটে কতটা চাপে পড়ে! যার দিকে নজর রয়েছে সকলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!