এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ইউজিসির নিয়ম না মেনে প্রেসিডেন্সির নিজস্ব নিয়মের জেরে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের মুখে প্রায় ৪০০ পড়ুয়া

ইউজিসির নিয়ম না মেনে প্রেসিডেন্সির নিজস্ব নিয়মের জেরে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের মুখে প্রায় ৪০০ পড়ুয়া

ফের বিতর্ক প্রেসিডেন্সিতে। কদিন আগেই সাপ্লিমেন্টারি পরীক্ষা ও নতুন করে ভর্তির নিয়ম জানানো নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল এই বিশ্বিদ্যালয় চত্বর। জানা গেছে, সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ নিজেদের ওয়েবসাইটে একটি নতুন নিয়মের কথা উল্লেখ করেন। বলা হয়, একটি শিক্ষাবর্ষে যদি কোনো ছাত্রছাত্রী দুটি সেমেষ্টারের দুটি পেপারেই পরপর ফেল করে তাহলে তাঁকে আর পরবর্তী ধাপে না তুলে অনুত্তীর্ন বলে ঘোষনা করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, এই সিদ্ধান্তটি 2017 র 7 জুলাই ফ্যাকাল্টি কাউন্সিলের বৈঠকেই চূড়ান্ত হয়েছে।  আর এইখানেই বেধেছে গন্ডগোল। ছাত্রছাত্রীদের প্রশ্ন, এতদিন অবধি 2016 সালের নিয়ম মানৃ হলেও কেন হঠাৎ এই নতূন নিয়ম প্রয়োগ করলেও সেই ব্যাপারে তাঁদের অবহিত করা হয়নি? সাথে সাথে তাদের দাবি, অবিলম্বে এই ছাত্রবিরোধী নিয়ম বাতিল করা হোক। কারন এই নিয়মের জেরে বিপাকে পড়েছেন 390 জনের মত ছাত্রছাত্রী।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

তবে এই ঘটনা অস্বীকার করে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ অবশ্য দাবি করছে, 390 নয় এখন তা কমে দাড়িয়েছে 100 জনে। কারন ইতিমধ্যেই অনেক ছাত্রছাত্রী প্রেসিডেন্সি ছেড়ে চলে গিয়েছেন। যারা নাম কাটাননি, তাঁদেরই নাম রয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে ইউজিসির নিয়ম না মানার অভিযোগে সরব ছাত্রছাত্রীরা। এ প্রসঙ্গে প্রেসিডেন্সির রেজিস্ট্রার দেবজ্যোতি কোনার বলেন, ” বিষয়টি ফ্যাকাল্টি কাউন্সিল ও ডিনের কাছ থেকে জানতে চাওয়া হবে। তবে প্রতিষ্টান বিভিন্ন কমিটির নিয়ম তৈরি করতেই পারে।” সব মিলিয়ে ফের বিতর্কে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!