এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > দ্বন্দ্ব নেই তৃণমূল ও যুবতে! প্রমানে মরিয়া নেতৃত্ত্বের কোটি টাকার বেশি বাজেটের গণেশ পুজো!

দ্বন্দ্ব নেই তৃণমূল ও যুবতে! প্রমানে মরিয়া নেতৃত্ত্বের কোটি টাকার বেশি বাজেটের গণেশ পুজো!

ভগবানের মধ্যে শীর্ষস্তরে রয়েছেন তিনি – বিধিমতে তাঁর পুজো না করলে অন্য কারও পুজো করা যায় না। এবার সেই সিদ্ধিদাতা গনেশই বড় ভরসা কোচবিহার জেলা তৃনমূল কংগ্রেসের। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কোচবিহারের দিনহাটায় বহুদিন ধরেই তৃনমূল ও তৃনমূল যুবর লড়াইয়ে উত্তপ্ত হয়েছে পরিবেশ। খোদ দলনেত্রীর নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও সেই লড়াইয়ে ইতি তো পড়েইনি উল্টে এই গোষ্ঠীকোন্দলে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ফায়দা তুলেছে বিজেপি।

তাই এবারে বিজেপিকে আটকাতে এবং দলের মধ্যে নিজেদের ঐক্য জনসমক্ষে তুলে ধরতে সচেষ্ট হল যুব তৃনমূল কংগ্রেস। সূত্রের খবর, ভেটাগুড়ি লাল বাহাদুর শাস্ত্রী হাইস্কুলের মাঠে কোটি টাকারও বেশি এই গনেশ পুজোতে ১১ সেপ্টেম্বর থেকে ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত থাকছে নানা চমক। জানা গেছে, ১১ সেপ্টেম্বর এই পুজোর উদ্বোধনে থাকবেন বলিউড অভিনেত্রী আমিশা প্যাটেল।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এছাড়া ১৩ সেপ্টেম্বর শুভশ্রী এবং ১৮ সেপ্টেম্বর হিমেশ রেশমিয়া উপস্থিত থাকবেন। এছাড়াও, ঋষি চক্রবর্তী, পরীক্ষিত বালা, পায়েল সরকার সহ অনেক শিল্পীই উপস্থিত থাকবে এই গনেশ পুজোর অনুষ্ঠানে। ইতিমধ্যেই এই অনুষ্ঠান ঘিরে চলছে জোরকদমের প্রস্তুতি। কিন্তু হঠাৎ যুব তৃনমূলের উদ্যোগে এহেন অনুষ্টান কেন? তাহলে কি গোষ্টীদ্বন্দ্বের তত্ত্বকে ঢাকতেই এহেন উদ্যোগ?

এইরকমই জল্পনায় যখন মশগুল হয়ে উঠেছে রাজনৈতিক মহল, ঠিক তখন এই পুজোর উদ্যোক্তা তথা কোচবিহার যুব তৃনমূলের সাধারন সম্পাদক নিশীথ প্রামানিক বলেন, “গোটা রাজ্যের মধ্যে এটিই সবথেকে বড় গনেশ পুজো। সবাই এই পুজোর চমক দেখতে অপেক্ষা করছেন”। তবে শুধু অভিনেতা-অভিনেত্রীদের উপস্থিতিই নয়, এই পুজোয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কন্যাশ্রী, সেফ ড্রাইভ সেফ লাইফের মত প্রকল্পগুলিকেও তুলে ধরা হবে। কিন্তু, গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ও কোটি টাকার বাজেট নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়ছেন না বিরোধী দলের নেতারা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!