এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > নিজের দলের নেত্রীর শ্লীলতাহানির দায়ে গ্রেপ্তার দুই তৃণমূল ছাত্রনেতা

নিজের দলের নেত্রীর শ্লীলতাহানির দায়ে গ্রেপ্তার দুই তৃণমূল ছাত্রনেতা

স্থানীয় সূত্রের খবর, জলপাইগুড়ির কোতোয়ালি থানার পুলিশ গতকাল দুই ছাত্র পরিষদের নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে। ধৃতদের নাম শুভব্রত চৌধুরি ও রাহুল চৌধুরি। তাঁদের বিরুদ্ধে জলপাইগুড়ি জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের এক সাধারণ সম্পাদিকার শ্লীলতাহানি ও প্রাণে মারার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ এনেছে দলেরই একাংশ। সূত্রের খবর, সমাজপাড়া এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের দুই গোষ্ঠীর নেতাদের মধ্যে বচসা ও পরে হাতাহাতি হয়। দলের যুব জেলা সভাপতির অনুগামী এক নেত্রী ও তাঁর লোকদের উপর জেলা ছাত্র সংগঠনের সভাপতির ঘনিষ্ঠরা চড়াও হয় বলে অভিযোগ।
যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের যুব সংগঠনের জেলা সভাপতি সৈকত চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এটা দলের কোনও গোষ্ঠীকোন্দলের বিষয় নয়। শুক্রবার রাতে কিছু সমাজবিরোধী দলের এক যুবনেত্রীর শ্লীলতাহানি করে। তারা ওই নেত্রীকে অ্যাসিড ছুঁড়ে প্রাণে মারার হুমকিও দিয়েছিল। দলে দুবৃত্তদের জায়গা নেই। কিন্তু সৈকতবাবু যাঁদের ‘সমাজবিরোধী’ আখ্যা দিয়েছেন তাঁদের মধ্যে একজন শুভব্রত চৌধুরি জলপাইগুড়ি কমার্স কলেজের প্রাক্তন এজিএস। অন্যদিকে, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি অভিজিৎ সিনহার বক্তব্য, যিনি শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনেছেন তিনি অতীতেও অনেকের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনেছেন। এনিয়ে সঠিক তদন্ত হওয়া উচিত। যদি ধৃত ছাত্রনেতারা অপরাধ করে থাকে সংগঠন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে। শুভব্রত চৌধুরি ও রাহুল চৌধুরির অনুগামীরা জানিয়েছেন, জলপাইগুড়ি পি ডি ওমেন্স কলেজের এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রতারণার একটি ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এমন অভিযোগ আনা হয়েছে। সবমিলিয়ে জলপাইগুড়ি যুব তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এইভাবে প্রকাশ্যে চলে আসায় অস্বস্তিতে শাসকদল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!