এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পুরভোটের প্রাক্কালে তৃণমূল শিবিরে ব্যস্ততা তুঙ্গে, দলীয় হেড কোয়ার্টারে বড়সড় পদক্ষেপ

পুরভোটের প্রাক্কালে তৃণমূল শিবিরে ব্যস্ততা তুঙ্গে, দলীয় হেড কোয়ার্টারে বড়সড় পদক্ষেপ

পশ্চিমবঙ্গে আবার বেজে উঠল নির্বাচনী দামামা। আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গে হতে চলেছে পুরভোট আর তারপরেই আসছে বিধানসভা নির্বাচন। এই বিধানসভা নির্বাচনের দিকেই লক্ষ্য রেখে সমস্ত রাজনৈতিক দল নিজেদের রণকৌশল তৈরি করছে এখন থেকেই। তবে সামনের পুরভোট জিততে কেউ কোনো খামতি রাখতে চাইছেন না। তাই এদিন পুরভোটের আগে নির্বাচনী রণকৌশল সাজাতে এবং দলীয় কার্যবিধি ঠিক করতে তৃণমূল ভবনে শাসকদল বৈঠকে বসছে বলে জানা গেছে। এই বৈঠকে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও উপস্থিত থাকবেন বলে খবর।

শুক্রবার বিকেল চারটেয় তৃণমূল ভবনে বৈঠকে বসছেন তৃণমূল নেত্রী সহ পশ্চিমবঙ্গ জেলার সমস্ত তৃণমূল সভাপতিরা। সূত্রের খবর, এদিন উত্তরবঙ্গ থেকে ফিরে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এয়ারপোর্ট থেকে সরাসরি তিনি পৌঁছাবেন তৃণমূল ভবনে এবং সেখানেই গুরুত্বপূর্ণ দলীয় বৈঠক সারবেন বলে খবর। জানা গেছে, এদিন মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচির পর্যালোচনা এবং আগামী দিনের নির্বাচনের নিরিখে যাবতীয় কর্মসূচি ঠিক করা হবে। এই বৈঠকে এ ছাড়াও সম্প্রতি নাগরিকত্ব ইস্যুতে দল যেভাবে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, তা নিয়েও আলোচনা হবে।

সূত্রের খবর, আগামী এপ্রিল মাসে কলকাতা সহ 93 টি পুরসভায় পুর নির্বাচন হবে। যার মধ্যে 17 টি পুরসভার নির্বাচনী সময়কাল ইতিমধ্যে পেরিয়ে গেছে। ইতিমধ্যেই দিদিকে বল কর্মসূচির নিরিখে জনপ্রতিনিধিরা কে কি কাজ করেছেন সে ব্যাপারে কৈফিয়ৎ নেওয়া হবে। এছাড়াও পরিষেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে পুরপ্রতিনিধিরা কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছেন, সে ব্যাপারেও জানতে চাওয়া হবে বলে খবর। এ ব্যাপারে ইতিমধ্যে প্রত্যেক পুরসভাকে রিপোর্ট বানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলীয় নেতৃত্বের তরফ থেকে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, এই পুরভোট বিধানসভা নির্বাচনের আগে সেমিফাইনাল ম্যাচ হিসেবে ধরা হবে। সে দিক দিয়ে দেখতে গেলে রাজনৈতিক শিবিরের প্রত্যেকের কাছে এই নির্বাচনের গুরুত্ব যথেষ্ট। এ প্রসঙ্গে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার উত্তরকন্যায় মুখ্যমন্ত্রী উত্তরবঙ্গের জেলা সভাপতিদের ব্যক্তিগতভাবে দলীয় বৈঠকে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। জেলা সভাপতিরা  ছাড়াও এ দিনের বৈঠকে উপস্থিত থাকতে চলেছেন তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী, মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়, যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রশান্ত কিশোর। বছরের শুরুতেই দলীয় বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী কি বলতে চলেছেন সেদিকে নজর থাকছে সবার। অন্যদিকে, এই পুরনির্বাচনে যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় ক্ষেত্রে কতটা গুরুত্ব পাবেন তাও জানা যাবে।

আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই এ রাজ্যে পুরসভা নির্বাচন আর তাই নিয়েই চারিদিকে সাজসাজ রব। রাজনৈতিক শিবিরগুলি নির্বাচনী ক্ষেত্রে নামার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। অন্যদিকে, রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই পুরসভা নির্বাচন হওয়ায় আগামী দিনের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট কিছুটা স্পষ্ট হয়ে উঠবে। আর সেই প্রেক্ষাপটকে ঘিরে নিজেদের ছবি ফুটিয়ে তুলতে এই মুহূর্তে চূড়ান্ত ব্যস্ততা রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে। আপাতত সম্পূর্ণ পরিস্থিতির ওপর নজর রাখবে রাজ্যের ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -
ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!