এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > অভিষেকের সামনেই বিরোধীদের মেরে-ধরে গ্রাম খালি করে নির্বাচনের নিদান সাংসদের

অভিষেকের সামনেই বিরোধীদের মেরে-ধরে গ্রাম খালি করে নির্বাচনের নিদান সাংসদের

গত শুক্রবার বাঁকুড়ার বিক্রমপুর হাইস্কুলের মাঠে এক দলীয় প্রচার সভায় অংশ নেন বর্তমানে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের অঘোষিত দুনম্বর নেতা তথা তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সভা থেকে তিনি দলীয় কর্মী-সমর্থকদের নির্দেশ দেন বিরোধীরা যাতে নিজেদের ভোট নিজেরা দিতে পারেন তা যেন নিশ্চিত করা হয়। কেননা বিরোধীরা ভোট দিলেও স্বচ্ছন্দে জয়লাভ করবে তৃণমূল। কিন্তু ওই একই সভা মঞ্চ থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য রাখার ঠিক আগেই বলেন সম্পূর্ণ অন্য কথা।

সৌমিত্রবাবু দলীয় কর্মীদের স্পষ্ট নিদান দেন, যারা বিজেপি করে, তাদের দরকার হলে ভোটের দিন গ্রামছাড়া করে দিন। প্রয়োজন হলে বুথ দখল করুন। যাই করুন না কেন, মনে রাখবেন বিজেপি যাতে একটিও আসন না পায়, তা নিশ্চিত করতে হবে। বিরোধীদের গ্রামছাড়া করতে বাঁকুড়াতেও প্রয়োজনে বীরভূম মডেল কাজে লাগাতে পারেন দলীয় কর্মীরা। যদিও সৌমিত্রবাবু যখন অনুব্রত মন্ডলের ‘অনুপ্রেরণায়’ ভোট করানোর নিদান দিচ্ছেন তখন মঞ্চে ওঠেননি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এরপরেই মঞ্চে উঠে মাইক ধরেই, সৌমিত্রবাবুর কথার ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে, তিনি দলীয় কর্মীদের নির্দেশ দেন সিপিএম এবং বিজেপি নেতারা যাতে নিজেদের ভোট নিজেরা দিতে পারেন, সেটা যেন নিশ্চিত করা হয়। বিরোধীদের বক্তব্য, দলীয় সংসদের কথায় বিতর্ক বাড়তে পারে বুঝেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এই কথা বলেছেন, কিন্তু পঞ্চায়েতের দিন রাজ্যের শাসকদল যে কিভাবে ভোট করবে তা সৌমিত্র খানের কথাতেই স্পষ্ট!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!