এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > উলটপুরাণ! অনুব্রত-গড়ে তৃণমূল শীর্ষনেতার কন্যা যোগ দিলেন গেরুয়া শিবিরে

উলটপুরাণ! অনুব্রত-গড়ে তৃণমূল শীর্ষনেতার কন্যা যোগ দিলেন গেরুয়া শিবিরে

এ যেন রীতিমত উলটপুরাণ! বীরভূম জেলার সীমানায় পূর্ব বর্ধমানের গুসকরায় বড়সড় চমক দিল বিজেপি। পূর্ব বর্ধমান জেলায় হলেও গুসকরা আদতে শাসকদলের তরফে বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের ‘অভিভাবকত্বে’ আছে। আর রাজ্য-রাজনীতিতে প্রচলিত কথা বীরভূমে অনুব্রতবাবুর কথাতেই বাঘে-গরুতে একঘাটে জল খায়!

তাই অন্যদলে থেকে এতদিন বিরোধীরা যে ‘ভুল’ করতেন অনুব্রতবাবুর দেখানো উন্নয়নের পথে তাঁরা ‘সঠিক’ সিদ্ধান্ত নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতেন। এই ঘটনা দেখতেই অভ্যস্ত ছিলেন এতদিন রাজ্যের মানুষ। এমনকি পঞ্চায়েত নির্বাচনে বীরভূমে জেলা পরিষদের একমাত্র বিরোধী প্রার্থী বিজেপির চিত্রলেখা রায়ও এমনই ‘ভুল’ বুঝতে পেরে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

কিন্তু বীরভূমের সেই বেতাজ বাদশার গড়েই সিঁদ কাটলেন বিজেপির জেলা নেতৃত্ত্ব। সূত্রের খবর, গুসকরা পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলার চঞ্চল গড়াইয়ের মেয়ে দেবযানী গড়াই হাতে তুলে নিলেন গেরুয়া পতাকা। বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মুকুল চতুর্বেদীর হাত ধরে দেবযানীদেবী গেরুয়া শিবিরে পদার্পন করেছেন বলে বঙ্গ-বিজেপি সূত্রে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রের খবর, গুসকরায় একটি বেসরকারি লজে আজ বিজেপির এক অভ্যন্তরীণ বৈঠক ছিল। সেই বৈঠকে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মুকুল চতুর্বেদী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পূর্ব-বর্ধমানের জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী, জেলা পর্যবেক্ষক তাপস রায় সহ অন্যান্য শীর্ষনেতৃত্ত্ব। সেই বৈঠকের আগেই এই দলবদল হয়। তবে বিজেপিতে যোগ দেওয়া প্রসঙ্গে মুখ খোলেননি দেবযানীদেবী, অন্যদিকে অনুব্রতবাবুরও কোনো সরকারি প্রতিক্রিয়া এই নিয়ে এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায় নি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!