এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > জল্পনা বাড়িয়ে পদ ছাড়লেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতা, পিছনে হঠাৎ কি রহস্য?

জল্পনা বাড়িয়ে পদ ছাড়লেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতা, পিছনে হঠাৎ কি রহস্য?

সম্প্রতি দলের কোর কমিটির বৈঠকে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের অনেক নেতার আচার-ব্যবহার-কার্যকলাপ নিয়ে স্পষ্ট বার্তা দেন, বাকিদের নাম না নিলেও পুরো দলের কাছে বার্তাটা ছিল জলের মত পরিষ্কার। আর তারপর থেকেই দলনেত্রীর নির্দেশে দলের অন্দরে অনেক পদের অদল বদল হয়েছে। তৃণমূল নেত্রীর লক্ষ্য আগামী লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের ৪২ টি আসনের মধ্যে ৪২ টিই জিতে কেন্দ্রীয় ক্ষেত্রে এক বড়সড় নির্ণায়ক ভূমিকা নেওয়ার – আর তাই আগামী দিনে শাসকদলের অন্দরে আরো বড় পরিবর্তন বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এবার সেই পরিস্থিতিকে আরো উস্কে দিলো একটা সিদ্ধান্ত – বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় সবাইকে চমকে দিয়ে এদিন তৃণমূল কংগ্রেস শ্রমিক সংগঠনের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিলেন।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

গতকাল মহাজাতি সদনে এক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে অন্যতম তৃণমূল কংগ্রেস শীর্ষনেতা তথা রাজ্যের গুরুত্ত্বপূর্ন মন্ত্রী শোভনদেববাবু, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে তাঁর দীর্ঘদিনের সম্পর্কে এবার ইতি টানার বিষয়ে জানালেন। এদিনের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী জানান, দলনেত্রীর সিদ্ধান্ত শিরোধার্য। এখন থেকে আর তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি পদে থাকছি না। ব্যক্তিগত কারণেই তিনি পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলেও জানান তিনি। এখন থেকে আইএনটিটিইউসি-র দায়িত্ব সামলাবেন রাজ্যসভার সাংসদ দোলা সেন। একই সাথে তিনি জানান, খাতায় কলমে তিনি পদে না থাকলেও উপদেষ্টা হিসেবে থাকবেন। সংগঠনের প্রয়োজনে যদি তাঁকে ডাকা হয় তাহলে তিনি যাবেন বলেও জানান। এদিনের সভায় উপস্থিত সংগঠনের অন্য সকলকে তিনি একজোট হয়ে কাজ করার জন্যেও পরামর্শ দিলেন। প্রসঙ্গত, তৃণমূল কংগ্রেসের জন্মলগ্ন থেকেই ইস্তফা দেওয়ার আগে অবধি শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় একটানা আইএনটিটিইউসি-র দায়িত্বে ছিলেন। কিন্তু দলের কোর কমিটির বৈঠকে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট শোভনদেববাবুকে ও আরেক গুরুত্ত্বপূর্ন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে দলের শ্রমিক সংগঠন থেকে সরে যেতে নির্দেশ দেন, রাজ্যসভার সাংসদ দোলা সেন ও মন্ত্রী মলয় ঘটককে এবার থেকে দলের শ্রমিক সংগঠন সামলানোর দায়িত্ত্ব দেন। তাই দাপুটে মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় সরে যেতেই এবার সুব্রত মুখোপাধ্যায় কি সিদ্ধান্ত নেন তাই নিয়েই বাড়ছে জল্পনা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!