এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > অধিকারী গড় এখনও তৃণমূলেরই, বিরোধীদের ‘নিশ্চিহ্ন’ করে আবারো প্রমান শাসকদলের

অধিকারী গড় এখনও তৃণমূলেরই, বিরোধীদের ‘নিশ্চিহ্ন’ করে আবারো প্রমান শাসকদলের

অধুনা পূর্ব-মেদিনীপুর একসময় তৎকালীন সিপিএমের দাপুটে সাংসদ লক্ষ্মণ শেঠের গড় হিসাবে পরিচিত ছিল। কিন্তু বিভিন্ন আন্দোলনের মাধ্যমে ধীরে ধীরে তা পিতা-পুত্রের হাত ধরে ক্রমশ হয়ে ওঠে অধিকারী গড়। পূর্ব মেদিনীপুর মানেই শিশির অধিকারী ও শুভেন্দু অধিকারীর খাসতালুক। কিন্তু, ইদানিং সেখানে বামফ্রন্টের ঘুরে দাঁড়ানোর একটা ইঙ্গিত বা গেরুয়া শিবিরের উপস্থিতি যেন জানান দিচ্ছিল।

এর একটা বড় কারণ, লক্ষ্মণ শেঠের দলবদল করে গেরুয়া শিবিরে যোগদান বলেই মনে করছিলেন সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু সেই গেরুয়া শিবিরে ‘কাজ করতে না পারার’ অভিযোগ সম্প্রতি দল ছেড়েছেন লক্ষ্মণ শেঠ। আর তাঁর পরবর্তী গন্তব্য যে তৃণমূল কংগ্রেস সেকথা নিজের মুখেই জানিয়েছেন। এমনকি এও জানিয়েছেন তাঁর তৃণমূলে যোগদান আটকে দিচ্ছেন স্বয়ং শুভেন্দু অধিকারী।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না – তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর এই সব বিতর্ক নিয়ে যখন জমজমাট পূর্ব-মেদিনীপুরের রাজনীতি – ঠিক তখনই অধুনা ‘অধিকারী-গড়’ জানিয়ে দিল যে তারা দুহাত তুলে শাসকদলের পাশেই আছে। বিরোধীদের একটি আসনেও জিততে না দিয়ে সেখানে বড় জয় ছিনিয়ে নিল তৃণমূল কংগ্রেস। স্থানীয় সূত্রের খবর, কাঁথি ১ নম্বর ব্লকের মহিষাগোট গ্রাম পঞ্চায়েতের কাপাসদা সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতির প্রতিনিধি নির্বাচনে ৪৮ টি আসনের সবকটিতেই বিপুল জয় ছিনিয়ে নিল ঘাসফুল শিবির।

৪৮ টি আসনের মধ্যে ১০ টিতে প্রথমেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়ী হন তৃণমূল প্রার্থীরা। কিন্তু, বাকি ৩৮ আসনের প্রতিটিতেই প্রার্থী দেয় বিজেপি। কিন্তু প্রতিটি আসনেই জয় ছিনিয়ে নেয় তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীরা। যদিও এই জয়ের পরে তুমুল তরজা শুরু হয়ে গেছে তৃণমূল-বিজেপির। তৃণমূল শিবিরের দাবি, এই জয় প্রমাণ করে মানুষের তৃণমূলের প্রতি আস্থা আরও বাড়ছে। বিজেপিকে মানুষ চায় না। অন্যদিকে, বিজেপির দাবি, লড়াই হয়েছে – মানুষ যে বিজেপিকে চাইছে, এই নির্বাচন থেকে তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। আগামী দিনে বিজেপিই পার্থক্য গড়বে, এ ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!