এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মুকুল রায়দের ধুয়ে মুছে সাফ করে দিতে সামনে এল শাসকদলের ‘মিশন-পঞ্চায়েত’

মুকুল রায়দের ধুয়ে মুছে সাফ করে দিতে সামনে এল শাসকদলের ‘মিশন-পঞ্চায়েত’

২০১৬ এর বিধানসভা নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতে দেখতে গেলে রাজ্যের ২০ টি জেলা পরিষদ, ৩৪১ টি পঞ্চায়েত সমিতি আর ৩৩৫৪ টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে সিংহভাগই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে। তার উপরে যেটুকু ছিল কংগ্রেস বা বামফ্রন্টের দখলে সেখানেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে শামিল হতে বেশিরভাগ জায়গাতেই ঘাসফুল ফুটে গেছে। তবুও আগামী বছরের পঞ্চায়েত ভোট যে সহজ হতে যাচ্ছে না তা জলের মত পরিষ্কার। কেননা এতদিনে ভোট ম্যানেজার মুকুল রায় দল ছেড়ে বিপক্ষ শিবির বিজেপিতে ভিড়েছেন। আর তাই মুকুল রায় সহ অন্যান্য বিরোধীদের ধুয়ে মুছে সাফ করে দিতে বিশেষ পরিকল্পনা নিল শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস।
সম্প্রতি কোর কমিটির বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছেন, আর সেই নির্দেশকে সামনে রেখে এবার শাসকদল প্রতি বুথে তৈরি করতে চলেছে ‘টীম-২৫’, যারা শাসকদলের হয়ে আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে বুথে বুথে নির্বাচন পরিচালনা করবেন। প্রতিবুথের বাছাই নেতা, সক্রিয় কর্মী, এলাকার তৃণমূলপন্থী বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে গঠিত হবে এই টীম বলে সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে। এই কৌশলের ছাড়পত্র এসে গেছে শীর্ষনেত্রীর কাছ থেকেও, আর তাই প্রাথমিকভাবে দলত্যাগী মুকুল রায়ের জেলা উত্তর ২৪ পরগনার প্রায় সাড়ে চার হাজার বুথে ‘টিম ২৫’ গঠনের কাজ চলছে বলে জানা যাচ্ছে। ধীরে ধীরে একই ‘ফর্মুলা’ গোটা রাজ্যের বাকি পঞ্চায়েত গুলিতেও নেওয়া হবে বলে জানা যাচ্ছে। তৃণমূল সূত্রে জানা যাচ্ছে, এলাকার নেতা-কর্মী ছাড়াও শিক্ষক, অধ্যাপক, চিকিত্‍সক, সমাজসেবী, শিল্পী, কলাকুশলী, সংস্কৃতিবাণ মানুষদের এই টিমে রাখা হচ্ছে। আর এঁদের মধ্যে যিনি সবথেকে বেশি দূরদৃষ্টতাসম্পন্ন হবেন, তাঁকেই ‘টিম ২৫’-এর নেতা নির্বাচন করা হবে। এখন দেখার শাসকদলের এই নতুন ফর্মুলা কেমন ভাবে ঝড় তোলে আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!