এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নিয়মিত ট্রেনের সফর করেন? রেলমন্ত্রকের এই যুগান্তকারী পদক্ষেপ আপনার মুখে হাসি ফোটাবেই

নিয়মিত ট্রেনের সফর করেন? রেলমন্ত্রকের এই যুগান্তকারী পদক্ষেপ আপনার মুখে হাসি ফোটাবেই

এবার দূরপাল্লার রেলযাত্রীদের সমস্যার কথা মাথায় রেখেই অভিনব পদক্ষেপ নিতে দেখা গেল রেলমন্ত্রককে। টার্মিনাল স্টেশান থেকে দূরপাল্লার ট্রেন ছাড়তে তিন ঘন্টা বা তার বেশি দেরি হওয়ার কারণে কোনো যাত্রী যদি সংরক্ষিত আসনের যাত্রা বাতিল করতে চান,তাহলে টিকিটের পুরো দামই ফেরত দেওয়া হবে তাকে। এমনটাই নিয়ম চালু করল রেলমন্ত্রক। সম্প্রতি লোকসভার বাদল অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে এই নিয়মের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তথ্য পেশ করেছে খোদ রেলমন্ত্রকই।

এর আগে ট্রেন লেট থাকলে সমস্যায় পড়তেন যাত্রীরা। নির্ধারিত সময়ে গন্তব্যে তো পৌছাতেই পারতেন না, এমনকী টিকিট বাতিল করতে চাইলেও  টাকা ফেরত পেতেন না তারা। ফলে দুদিক থেকেই ভোগান্তির সম্মুখীন হতে হত যাত্রীদের। তবে এবার রেলমন্ত্রকের নতুন নিয়ম অনুযায়ী সংশিষ্ট যাত্রী যে কোনো রিজার্ভেশন কাউন্টারে গিয়ে টিকিট জমা করলেই টিকিটের গোটা টাকাই ফেরত পাবেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

তবে উল্লেখ্য,নিয়মটি প্রযোজ্য শুধুমাত্র টার্মিনাল স্টেশানের ক্ষেত্রে। অর্থাৎ যে স্টেশান থেকে ট্রেন ছাড়ছে। ট্রেন চলা শুরুর পর মাঝপথে কোনো কারণে লেট হলে তার জন্য কোনো সংস্থাই দায়ী নয়। যদিও ট্রেন চলতে চলতে মাঝরাস্তায় দেরির কারণে কোনো লিঙ্কিং ট্রেন মিস হলে পরবর্তী ট্রেনের টিকিট কাটার সময় ৫০%  ছাড় পাওয়া যায়।

কিন্তু এ সুবিধা কার্যকর শুধু মাত্র অনলাইন টিকিটের জন্য। সেক্ষেত্রে তো লিঙ্কিং ট্রেন ছাড়ার আগেই অনলাইনে টিকিটটিই বাতিল করতে হবে। তবে রেলমন্ত্রকের নতুন নিয়মে আমযাত্রীদের মুখে হাসি ফুটলেও একটা প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। দূরপাল্লার ট্রেনগুলো চলতে চলতে মাঝপথে দাঁড়িয়ে যায় বেশিরভাগ সময়ই। যার জেরে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হয় যাত্রীদের। এই সমস্যার পূর্ণ সমাধান কবে মিলবে? আপাতত এই প্রশ্নই ঘুরছে রেলযাত্রীদের মুখে। জবাব শুধুমাত্র রেলদপ্তরের কাছেই রয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!