এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সহযোগিতা না পাওয়ার অভিযোগে দল ছাড়লো তৃণমূলের ইউনিটের সমস্ত সদস্য, জোর চাঞ্চল্য জঙ্গলমহলে

সহযোগিতা না পাওয়ার অভিযোগে দল ছাড়লো তৃণমূলের ইউনিটের সমস্ত সদস্য, জোর চাঞ্চল্য জঙ্গলমহলে

কার্তিক গুহ,ঝাড়গ্রাম : সাঁকরাইল অনিল বিশ্বাস স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ের টিএমসিপি ইউনিটের সমস্ত সদস্য পদত্যাগ করলেন। তারা টিএমসিপি ছেড়ে দিলেন। টিএমসিপির ঝাড়গ্রাম জেলা সভাপতি সত্যরঞ্জন বারিককে লিখিতভাবে তারা জানিয়ে দিয়েছেন, নেতৃত্বের কাছ থেকে কোনো রকম সহযোগিতা না পেয়ে তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

কয়েক মাস ধরেই ঝাড়গ্রাম জেলার কলেজগুলিতে গেরুয়া ছাত্র সংগঠন এবিভিপি এবং টিএমসিপির মধ্যে ক্ষমতা দখলের লড়াই চলছে। কলেজগুলিতে গোলমালের ঘটনা ঘটছে। সাঁকরাইল কলেজে কিছুদিন আগে উভয় পক্ষের গোলমালে টিএমসিপি সমর্থক দুই ছাত্রীসহ তিনজনকে এবিভিপির সদস্যরা মারধর করে বলে অভিযোগ।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

কিন্তু ওই ঘটনায় নেতৃত্বের কাছ থেকে কোনো রকম সহযোগিতা পাননি বলে অভিযোগ পদত্যাগী টিএমসিপি সদস্যদের। তাই ক্ষুব্ধ হয়ে সাঁকরাইল ব্লক টিএমসিপির সভাপতি দীপক বেরা সহ জনা পঞ্চাশ সদস্য মঙ্গলবার সংগঠন ছেড়েছেন। নেতৃত্বের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলে এদিন মানিকপাড়া এলাকার টিএমসিপি কর্মীরাও টিএমসিপির ঝাড়গ্রাম গ্রামীণ সভাপতি সেখ নজরুলের নেতৃত্বে আরো ৪৮ জন টিএমসিপির সদস্যপদ থেকে পদত্যাগ করছেন।

এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে টিএমসিপির নেতৃত্বের মধ্যে। এদিন সাঁকরাইল কলেজে পদত্যাগী টিএমসিপি সদস্যরা কলেজ লাগোয়া এলাকা চত্বর থেকে টিএমসিপির পতাকা, ফেস্টুন ও ব্যানার খুলে নেন।

Top
error: Content is protected !!