এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > অব্যাহত ভর্তিতে তোলাবাজি? এবার যা দাম শোনা গেল – ভাবতেও পারবেন না!

অব্যাহত ভর্তিতে তোলাবাজি? এবার যা দাম শোনা গেল – ভাবতেও পারবেন না!

মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে এবং প্রশাসনের বিশেষ সক্রিয়তায় কয়েকদিন চুপ করেছিলো কলেজে শিক্ষার্থী ভর্তির নামে অসাধু তোলাবাজ চক্র। এখন প্রশাসনের সক্রিয়তা একটু আলগা হতেই বেশ দাপটের সাথে ঐ তোলাবাজি চক্র তাদের কাজে আবার ও লেগে পড়লো। কলেজ কলেজে এখন সান্মানিক কোর্সে ভর্তির জন্যে রীতিমতো দর কষাকষি শুরু হয়েছে।

প্রসঙ্গত এর আগেও কলেজে ভর্তির নামে আর্থিক লেনদেনের বিরুদ্ধে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী  উদ্যোগ নিয়ে কড়া হাতে নিয়ন্ত্রন করেছিলেন এবং রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনকেও এই অপরাধের বিরুদ্ধে বিশেষ সক্রিয়তা দেখাতে বলেছিলেন। সেই সময়ে মুখ্যমন্ত্রীর নেওয়া পদক্ষেপে পরিস্থিতি বেশ কিছুটা স্তিমিত হয়ে যায়। কিন্তু প্রায় বেশ কিছুদিন পরে এদিন উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলায় আবারও শিক্ষার্থী ভর্তি জন্যে আর্থিক লেনদেনের ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেস ছাত্র পরিষদের নাম উঠে এলো।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

অভিযোগ উঠেছে রাজ্যের শাসক দলের ছাত্র সংগঠনের নামে বেআইনী কাজ করার অভিযোগ জানিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপের দাবি জানানো হয়। কিন্তু তাতেও বর্তমান পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন হয়নি বলে জানা যাচ্ছে। অভিযোগ, কোথাও ভূগোল অনার্স এক লক্ষ টাকা, আবার কোথাও ইংরেজি অনার্সে ভরতির জন্য পঞ্চাশ হাজার টাকা চাওয়া হচ্ছে।

এদিন  এই বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপের দাবিতে এসএফআই-এর জলপাইগুড়ি জেলা কমিটির উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়। মিছিলের নেতৃত্ব ছিলেন সংগঠনের রাজ্য নেতৃত্ব অরুণ অঞ্জন সাহা, দীপক বর্মন, জেলা সম্পাদক শুভঙ্কর গুহরায় প্রমুখ । এই পরিস্থিতির বিরুদ্ধে তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানালেন সরকাররে পক্ষ থেকে দ্রুত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে ছাত্রছাত্রীদের কলেজে ভর্তির সুযোগ করে দিতে হবে। একইসাথে এই গোটা ঘটনায় পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি করা হয়েছে বামফ্রন্টের এই ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে।

Top
error: Content is protected !!