এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > যারা করে কম্মে খাওয়ার জন্য দলকে ব্যবহার করছেন, এই দল তাদের জন্য আর নয়: রাজীব ব্যানার্জি

যারা করে কম্মে খাওয়ার জন্য দলকে ব্যবহার করছেন, এই দল তাদের জন্য আর নয়: রাজীব ব্যানার্জি

লোকসভা নির্বাচনে দলে দুর্নীতি এবং জনসংযোগের অভাবেই 34 থেকে 22 টি আসনে নেমে যেতে হয়েছে রাজ্যের শাসক দলকে। সাধারণ মানুষের সঙ্গে দলের জনপ্রতিনিধিদের যে সংযোগ অতটা ছিল না, তা দলের ফলাফল পর্যালোচনা বৈঠকে উঠে এসেছে। যার পর লোকসভা নির্বাচন থেকে শিক্ষা নিয়ে সামনের বিধানসভা নির্বাচনকে টার্গেট করে দলের স্বচ্ছ ভাবমূর্তি থাকা ব্যক্তিদের সামনের সারিতে নিয়ে আসতে চাইছে তৃণমূল।

আর এবার দলের দুর্নীতি যে কোনভাবেই বরদাস্ত করা হবে না, তা কর্মী সম্মেলনের মধ্য দিয়ে সকলকে কড়া ভাষায় জানিয়ে দিলেন নদীয়া জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, শুক্রবার নদিয়ার নাকাশিপাড়ার আড়বেতাইয়ে দলের কর্মীদের নিয়ে একটি বৈঠক করেন নদীয়া জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক।

আর সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, “কোথাও কোথাও শুধু করে কর্মে খাওয়ার জন্য দলটাকে ব্যবহার করা হয়েছে। আমি বলে যাচ্ছি, যারা করে কর্মে খাওয়ার জন্য দলকে ব্যবহার করেছেন, এই দল তাদের জন্য নয়। যদি কেউ দলকে সামনে রেখে নিজের আখের গোছানো আর রাবার স্ট্যাম্প ব্যবহার করে টাকা তোলার স্বার্থ পূরণ করেন, তাহলে তাদের সাবধান করছি। আমি কিন্তু সব খোজ রাখছি। মনে রাখবেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিকে সামনে রেখে লুটেপুটে খাবেন, সেটা আমি কখনও হতে দেব না।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিকে এদিনের এই কর্মী সমাবেশ থেকে দলের নিচুতলার কর্মীরাই যে দলের সম্পদ, তা সকলকে মনে করিয়ে দিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “অনেকে কর্মীদের সম্মান দেন না। মনে রাখবেন কর্মীরাই দলের সম্পদ। অনেক লাঞ্ছনা, অত্যাচার সহ্য করে কর্মীরাই দলকে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন। সুতরাং কোনভাবেই কর্মীদেরকে অবহেলা করা যাবে না। নেতারা নিজেদের আখের গোছাচ্ছেন। কিন্ত কর্মীরা শুধু একটু সম্মান চান।

আমাদের আচার-আচরণ যেন এমন জায়গায় না যায় যে মনে হয় মাটি থেকে আমাদের পা উঠে গিয়েছে। মাটির সঙ্গে বেশি করে মিশতে হবে। সংগঠনকে নীচুতলা পর্যন্ত শক্তিশালী করতে হবে।” অন্যদিকে নদীয়ার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্র তৃণমূল জিতলেও আত্মতুষ্টি না রেখে আরও বেশি করে পরিশ্রম করে দলকে ভালো জায়গায় নিয়ে যাওয়ারও পরামর্শ দেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা বাড়িয়ে বিজেপিকে কুপোকাত করে নিজেদের ভোট আরও কিভাবে বাড়ানো যায়, তার জন্য নেতাদের আরও বেশি করে পরিশ্রম করার কথা বলেন তিনি। এদিকে দলীয় কমিটির ব্যাপারে 100 জনের বদলে 20 জন কাজের মানুষকে নিয়ে কমিটি করা অনেক ভালো বলে এদিন সবাইকে জানিয়ে দেন কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

অন্যদিকে কর্মী বৈঠকের পর পলাশীপাড়ায় এমএলএ কাপের উদ্বোধন করে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী 28 আগস্ট টিএমসিপির প্রতিষ্ঠা দিবসের প্রস্তুতি উপলক্ষে রানাঘাটের নজরুল মঞ্চে একটি সমাবেশে যোগ দেন। যেখানে ছাত্র রাজনীতিতে সকল ছাত্রদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!