এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > আজ তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে মমতা- পিকের দিকে তাকিয়ে ক্রমশ বাড়ছে শাসকদলের জল্পনা

আজ তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে মমতা- পিকের দিকে তাকিয়ে ক্রমশ বাড়ছে শাসকদলের জল্পনা

পুজোর মরসুম শেষ। আর বিজয়া শেষ হওয়ার সাথে সাথেই রাজ্যের সমস্ত জেলার বিভিন্ন ব্লক, টাউন, জেলা সভাপতি সাংসদদের নিয়ে তৃণমূল ভবনে আজ বিশাল মাপের বৈঠক করতে চলেছেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যে বৈঠককে ঘিরে এখন রীতিমত তীব্র হচ্ছে জল্পনা।

বস্তুত, লোকসভা নির্বাচনে দলের ভরাডুবির পর ভোটগুরু বলে পরিচিত প্রশান্ত কিশোরের পরিকল্পনামাফিক রাজ্যের সর্বত্র দিদিকে বলো কর্মসূচি করে সাধারণ মানুষের সঙ্গে জনসংযোগে ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন তৃণমূলের নেতাকর্মীদের দলীয় পদাধিকারী, সাংসদ, বিধায়করা।

কিন্তু সেই জনসংযোগের মাত্রা যাতে আরও বাড়িয়ে সাধারন মানুষের আরও কাছে পৌঁছে যাওয়া যায়, তার জন্য আজকের বৈঠকে একদিকে দলের ব্লক সভাপতি থেকে টাউন সভাপতির সঙ্গে বিজয়ার শুভেচ্ছা যেমন বিনিময় করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ঠিক তেমনই প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিতেও দেখা যাবে তাকে বলে মত একাংশের।

জানা গেছে, রাজ্যের প্রায় 400 টি ব্লকের সভাপতি এবং 127 টি টাউন কমিটির সভাপতিদের এই বৈঠকে ডাকা হয়েছে। আর আশ্চর্যজনকভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি এই বৈঠকে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে ভোটগুরু প্রশান্ত কিশোরের। যা রীতিমতো তৃণমূলের অনেক নেতা থেকে কর্মীদেরই মাথার ঘাম বাড়াতে শুরু করেছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কেননা প্রশান্ত কিশোরের পরিকল্পনামাফিক এখন যদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলকে আরও কঠিন জনসংযোগের কর্মসূচি বেঁধে দেন, তাহলে দীর্ঘদিন ধরে জনসংযোগের অভাবে থাকা নেতা-নেত্রীদের সেই কর্মসূচি পালন করতে অনেকটাই অসুবিধে হবে। তাই তৃণমূলের একাংশ এখন এই বৈঠক নিয়ে প্রবল চিন্তায় রয়েছেন বলে মত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।

সূত্রের খবর, আগামী বছরই রাজ্যের 105 টি পৌরসভায় নির্বাচন রয়েছে। ফলে আজকের বৈঠকে সেই সমস্ত পৌরসভায় দলের জনপ্রিয়তা কেমন রয়েছে, তা সেখানকার টাউন সভাপতি থেকে শুরু করে সেই জেলার জেলা সভাপতিদের কাছ থেকে শুনে নিয়ে গোটা ব্যাপারটি বোঝবার চেষ্টা করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পাশাপাশি কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনেও দলকে আরও রাস্তায় নামার পরামর্শ দিতে পারে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব বলে মনে করছে একাংশ। ইতিমধ্যেই বুথস্তরের সংগঠনকে শক্তিশালী করতে নিচতলা থেকে কুড়ি জনের নামের তালিকা জমা দিতে বলা হয়েছিল। ফলে সেই প্রক্রিয়া কতদূর এগুলো তা নিয়েও আজকের বৈঠকে আলোচনা হতে পারে।

এদিনের এই বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রশান্ত কিশোর ছাড়াও উপস্থিত থাকবেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়, রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি এবং যুব তৃনমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু রাজনৈতিক মহলের একাংশ বলছে, পুজোর মরসুমের পরে রাজ্যের সমস্ত ব্লকের ব্লক সভাপতি এবং টাউন সভাপতিদের নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল ভবনের আজকের বৈঠক অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

আর যদি আজকের এই বৈঠকের সমস্ত জল্পনা কে সত্যি করে ভোট গুরু প্রশান্ত কিশোর উপস্থিত থাকেন, তাহলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রশান্ত কিশোরের সম্মিলিত সিদ্ধান্তের ফল অনুযায়ী আজকের বৈঠক থেকে কোনো মহতী সিদ্ধান্ত নেয় কিনা তৃণমূল, এখন সেদিকেই তাকিয়ে গোটা রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!