এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বন্যা ত্রাণের সামগ্রী পাচার করছে পঞ্চায়েত সভাপতি, বিস্ফোরক অভিযোগ উপপ্রধানের

বন্যা ত্রাণের সামগ্রী পাচার করছে পঞ্চায়েত সভাপতি, বিস্ফোরক অভিযোগ উপপ্রধানের

বন্যা ত্রাণের সামগ্রী লুকিয়ে রেখে তা বেআইনি ভাবে পাচার করবার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ ছড়ালো সমগ্র বালুরঘাট অঞ্চলে।চকভৃগু পঞ্চায়েতের উপপ্রধান তৃণমূল কংগ্রেসের চন্দন দাস অভিযোগ জানান, বন্যা ত্রাণের ত্রিপল দুর্গতদের না দিয়ে তা ঘরের মধ্যে মজুত রাখা এবং সম্প্রতি তা বাইরে বিক্রি করে দেওয়ায় জড়িত তৃণমূলের পঞ্চায়েত সভাপতি শৈলেশ মোহান্ত সহ স্থানীয় কয়েকজন নেতা।
চকভৃগু পঞ্চায়েতের উপপ্রধান অভিযোগ করে বলেন, বেশ কয়েকদিন ধরেই তাঁরা লক্ষ্য করছিলেন যে কালীবাড়ি মোড়ের নিকটের একটি বন্ধ দোকান থেকে রাতের বেলা প্যাকেটে করে কিছু বাইরে পাচার করা হচ্ছে। খোঁজ নিয়ে তাঁরা জানতে পারেন যে দোকানের ভেতর সরকারি শ’খানেক ত্রিপল মজুত রয়েছে এবং  বেআইনি ভাবে মজুত সেই ত্রিপোলগুলি এলাকার এক ব্যবসায়ী সম্প্রতি কিনে নিয়ে সেগুলি অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন।
মাস চারেক আগে অন্যান্য অঞ্চলের মত প্রবল বন্যার কবলে পড়েছিল দক্ষিণ দিনাজপুরের মানুষ।তাদের সাহায্যার্থে সরকারের পক্ষ থেকে ত্রিপল পাঠানো হয়েছিল চকভৃগু এলাকায় এবং সমগ্র বরাদ্দকে সংগৃহিত করে রাখা হয়েছিল তৃণমূল সভাপতির দোকান সংলগ্ন একটি ঘরে।কিন্তু বন্যার সময় ত্রাণ না পাবার বারংবার অভিযোগ ওঠে।আর প্রশাসনের দ্বারা সরবরাহিত সেই সকল  ত্রিপোলগুলি চকভৃগু এলাকায় ঘর থেকে উদ্ধার হওয়ায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।বালুরঘাট পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তৃণমূল কংগ্রেসের প্রবীর রায় এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন যে এই ঘটনায় যাঁরাই জড়িত থাকুন না কেন পুলিশ তদন্ত করে তার ব্যবস্থা নেবেন।
Top
error: Content is protected !!