এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > ‘বহিরাগত’ তকমা ঘোচাতে ভোটের মুখে বড়সড় পদক্ষেপ তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষের – জানুন বিস্তারিত

‘বহিরাগত’ তকমা ঘোচাতে ভোটের মুখে বড়সড় পদক্ষেপ তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষের – জানুন বিস্তারিত

বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্র থেকে এবার নির্বাচনে প্রার্থী হতে আগ্রহী তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। তবে তাঁর ইচ্ছায় বাঁধ সাধছে ‘বহিরাগত’ তকমা। এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে দলের মধ্যেই সম্প্রতি বিতর্ক তৈরি হয়েছে। এবার সেই বিতর্কের গোড়ায় জল দিতেই বালুরঘাটের স্থায়ী বাসিন্দা হতে ভোটার তালিকায় নাম তোলার সিদ্ধান্ত নিলেন অর্পিতা ঘোষ।

আর সেজন্যেই তাঁর বর্তমান কোলকাতার ঠিকানায় থাকা ভোটার লিস্টে নাম কাটানোর প্রক্রিয়া তিনি ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছেন। সেই প্রক্রিয়া শেষ হলেই বালুরঘাটের ভাড়া বাড়ির ঠিকানা দিয়ে বালুরঘাটের স্থায়ী বাসিন্দা হিসাবে ভোটাট তালিকায় নাম নথিভুক্ত হয়ে যাবে অর্পিতা ঘোষের। তবে লোকসভা ভোটের প্রার্থী কে হবেন,সে ব্যাপারে একমাত্র সিদ্ধান্ত নেবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে জেলার সদস্যরাই একমাত্র সেই জেলার লোকসভা কেন্দ্রে ভোটে দাঁড়াতে পারবেন এমনটাও বলে দেওয়া হয়েছিল নবান্ন থেকে। আর সেজন্যে অর্পিতা ঘোষ বিরোধীরা তাঁকে বহিরাগত তকমা দিয়ে বিরুদ্ধাচারণ করে চলছেন যাতে তিনি এবারের ভোটের প্রার্থী না হতে পারেন। তবে অর্পিতা দেবীর ঘনিষ্ঠমহলের মতে,বালুরঘাটের উন্নয়নের জন্য অর্পিতা দেবীর মতো একজন দক্ষ সংগঠক দরকার। একাজে অর্পিতা দেবীকে সক্রিয় হতে দেখে শহরের তৃণমূল সমর্থকরা ব্যাপক খুশি হয়েছেন।

ওদিকে অর্পিতা ঘোষকে ‘বহিরাগত’ বলার বিরুদ্ধে মুখ খুললেন সাংসদ নিজেই। বললেন,’আমি বহিরাগত কেউ নই। জেলার জন্য গত পাঁচ বছর নিজের সংসদ কোটার ১০০ শতাংশ টাকা খরচ করেছি। তারপরেও কেউ বহিরাগত বললে খারাপ লাগে। নেত্রী নির্দেশ দিয়েছেন লোকসভা ভোটে যেভাবেই হোক বালুরঘাট কেন্দ্রে জিততে হবে। সেই দিক নজর দিয়ে আমি বালুরঘাটের স্থায়ী বাসিন্দা হিসেবে তৃণমূলের হয়ে কাজ করব। দু’-একদিনের মধ্যে ভোটার তালিকায় নাম তোলার সমস্ত প্রক্রিয়া শেষ করব।’

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

তৃণমূল সূত্রের খবর,বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে বর্তমান সংসদ সদস্য অর্পিতা ঘোষের পাশাপাশি এগিয়ে রয়েছেন দলের জেলা তৃণমূল সভাপতি বিপ্লব মিত্রও। দুজনেরই ঘনিষ্ঠমহল তাঁদের প্রিয় মানুষকে প্রার্থী করার দাবীতে সরব হয়েছে। এনিয়ে এলাকায় তৃণমূল সংগঠনের মধ্যেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব দেখা গিয়েছে।

সম্প্রতি দলের জেলা পর্যবেক্ষক গৌতম দেবে জেলায় এসে প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে দ্বন্দ্ব না করার কথা বলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার নিদান দিয়েছেন। সাফ কথায় জানিয়ে দিয়েছেন,প্রার্থী ঠিক করবেন শুধুমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর জেলায় প্রার্থী নিয়ে দড়ি টানাটানি কিছুটা কমে। তবে অর্পিতা ঘোষ বিরোধীরা তাঁর বিরুদ্ধে অপপ্রচার করা থামাচ্ছে না। তাঁদের বক্তব্য,অর্পিতা দেবী বহিরাগত। তাই তাকে লোকসভা ভোটে প্রার্থী করার কোনো মানে হয় না। প্রার্থী এবার এলাকার লোক হোক,এমনটাই দাবী তাঁদের।

তবে জেলা নেতৃত্বের মতে,এভাবে যাঁরা দলের নেতাদের সম্পর্কে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাঁরা দলের লোক হতেই পারে না। তবে সমস্ত জল্পনার ইতি টেনে শেষেমেশ সংসদ সদস্য অর্পিতা দেবী বালুরঘাটের স্থায়ী বাসিন্দা হতে চলেছেন। এবার তাঁর লোকসভা ভোটে প্রার্থী হওয়া কে আটকায় সেটাই দেখার! বালুরঘাট সম্পর্কে তিনি বললেন,নাটকের শহর বালুরঘাট তাকে অনেক ভালোবাসা দিয়েছে।

তাই এখান থেকে তাকে প্রার্থী করা না হলেও বালুরঘাটে থেকেই এখানের মানুষের এবং জেলার উন্নয়নের কাজ করতে ইচ্ছুক তিনি। অর্পিতা দেবীর এই বক্তব্য যেমন তাঁর অনুগামীদের খুশি করেছে তেমনি তাঁর বিরোধী গোষ্ঠীকে চাপে ফেলেছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!