এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আমরা সেনাবাহিনী নিয়ে রাজনীতি করব না – দাবি তৃণমূল সাংসদের

আমরা সেনাবাহিনী নিয়ে রাজনীতি করব না – দাবি তৃণমূল সাংসদের

Priyo Bandhu Media

নানা জটিলতার পর অবশেষে বৃহস্পতিবারই দেশে ফিরেছেন উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। আর অভিনন্দনকে পাক প্রশাসন ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার সময় তৈরি হয়েছে নানা জটিলতা, নানা টালবাহানা, একটা সময় বলে পরক্ষণে সেইসময়ে ফিরিয়ে না দেওয়ার পর অবশেষে রাত্রিবেলা ভারতের হাতে তাঁকে সঁপে দিয়েছে পাক প্রশাসন। আর এরই মাঝে এবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রশংসার সুর শোনা গেল ব্যারাকপুরের তৃণমূল সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীর গলায়।

সূত্রের খবর, এদিন উত্তর 24 পরগনার ব্যারাকপুরের এক অনুষ্ঠানের প্রথমেই দেশের বীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে অভিনন্দন জানিয়ে দীনেশ ত্রিবেদী বলেন, “অভিনন্দন বর্তমান দেশের নাম উজ্জ্বল করেছেন। ওর জন্য আমরা আজ গর্বিত। আমি নিজে পাইলট ছিলাম। তাই জানি পাইলটরা ঠিক কিভাবে কাজ করে!”

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি ভারতীয় সেনাবাহিনীকেও প্রশংসার চাদরে মুড়িয়ে দিয়ে দীনেশ ত্রিবেদী বলেন, “ভারতীয় সেনারা গোটা পৃথিবীর মধ্যে খ্যাতিসম্পন্ন। হিন্দিতে একটা কথা আছে ‘সর কাটা সকতেহে লেকিন সর ঝুকা সকতে নেহি।” অভিনন্দন সেটাই করে দেখিয়েছে। আমরা সেনাবাহিনী নিয়ে কেউ রাজনীতি করবো না। ওদের আমরা স্যালুট জানাই।”

কিন্তু দীনেশ ত্রিবেদী এহেন কথা বললেও গত 26 শে ফেব্রুয়ারি ভারতের বায়ুসেনা যখন পাকিস্তানের একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি উড়িয়ে দেয় বলে খবর আসে, ঠিক তখনই আদৌ পাকিস্তানে কোনো ক্ষতি হয়েছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করতে দেখা যায় তৃণমূল সুপ্রিমো তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

ফলে দলনেত্রী বায়ুসেনার সাফল্য নিয়ে প্রশ্ন তুললেও দলীয় সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীর মুখে সেই বায়ুসেনাকেই স্যালুট জানানোর কথায় শুরু হয়েছে তীব্র জল্পনা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!