এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগে নাম জড়ালো তৃণমূল বিধায়কের ছেলের  

বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগে নাম জড়ালো তৃণমূল বিধায়কের ছেলের  

দুই রাজনৈতিক গোষ্ঠীর মধ্যে দ্বন্দ্ব আবার চোখে পড়ল দাসপুরের হরিরাজপুরে। দাসপুরের বিধায়ক মমতা ভূঁইয়ার ছেলে কুমারেশ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীদের উপর আক্রমণ চালানোর অভিযোগ তুললো ঘাটালের বিজেপি সভাপতি রতন দত্ত। অভিযোগ এই আক্রমণে একজন মহিলা সহ ১০ জন আহত হয়েছেন। দুষ্কৃতীরা বিজেপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ভাঙচুর চালিয়েছে বলেও অভিযোগ ওঠে।
বিজেপির ঘাটাল লোকসভা জেলার সভাপতি রতন দত্ত অভিযোগ করেন, কিছু তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী এদিন আমাদের কর্মীদের উপর চড়াও হয়। এমনকি মারধরের পর ওই দুষ্কৃতীরা আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করতেও বাধা দেয়। এই নিয়ে পুলিশে অভিযোগ জানাতে গেলে জানতে পারি তৃণমূলের পক্ষ থেকে আগেই অভিযোগ জানানো হয়েছে আমাদের বিরুদ্ধে। এমনকি অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে দাসপুর পুলিশ।
উল্টোদিকে, তৃণমূলের দাসপুর-১ ব্লক সভাপতি সুকুমার পাত্র বলেন, ওই দিন রাতে বিজেপির কিছু কর্মী গ্রামের তৃণমূল সদস্যদের উদ্দেশ্যে শব্দবাজি ছোঁড়ে আর তাতে উত্তেজিত হয়েই সাধারণ গ্রামবাসী বিজেপির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায় এবং পাশাপাশি তাদেরকে আক্রমণ করে, আর তার জেরেই ছয়জন আহত হয়। বিধায়ক মমতাদেবী বলেন, বিজেপির কর্মী ও নেতারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে স্থানীয় বাসিন্দাদের আক্রমণ করেছে। আর বিধায়ক পুত্র কুমারেশ ভূঁইয়ার বক্তব্য, মঙ্গলবার গ্রাম সংসদের সভা ছিল তাই তার আগের দিন সোমবার তার প্রস্তুতি চলছিল, সেখান থেকেই ফেরার সময় কিছু বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতী আমাদের উপর আক্রমন চালায়।

আপনার মতামত জানান -
Top