এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > ভেঙে পড়া সংগঠনকে পুনরুজ্জীবিত করতে কোমর বেঁধে ময়দানে নামলেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা

ভেঙে পড়া সংগঠনকে পুনরুজ্জীবিত করতে কোমর বেঁধে ময়দানে নামলেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা


কিছুদিন আগেই জেলা তৃণমূলের সভাপতি পদ থেকে গৌতম দেবের জায়গায় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে শিলিগুড়ি পৌরসভার বিরোধী দলনেতা রঞ্জন সরকারকে। আর দায়িত্ব নেওয়ার পরই তিনি জানিয়েছিলেন যে, দলীয় সংগঠনকে তিনি ঢেলে সাজাবেন। আর কথা দিয়ে এবার কথা রাখলেন রঞ্জনবাবু। সূত্রের খবর, তিনমাস পর এবার দলের শিলিগুড়ি টাউন 3 কমিটির সভাপতির পদে কাউন্সিলর দুলাল দত্তকে বসানোর কথা ঘোষণা করলেন সেই রঞ্জন সরকার।

পাশাপাশি আগামী কুড়ি অক্টোবর বিজয়া সম্মেলনীর মধ্য দিয়ে আগামী পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে রণকৌশল তৈরি করা হবে বলেও জানা গেছে জেলা তৃণমূল সূত্রে। কুড়ি অক্টোবর এই বিজয়া সম্মেলনী অনুষ্ঠিত হবে কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে। যেখানে উপস্থিত থাকবেন জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, প্রাক্তন জেলা সভাপতি তথা বর্তমান পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব সহ বেশ কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় তৃণমূল নেতা।

এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা সভাপতি রঞ্জন সরকার বলেন, “আগামী বছর শিলিগুড়ি পৌরসভা ও মহাকুমা পরিষদ নির্বাচন হবে। তাই বিজয়া সম্মিলনীর অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে দলের সংগঠনকে আরও মজবুত করার শপথ গ্রহণ করা হবে। সারা বছর দলের কর্মসূচি চলছে। আমরা মানুষের সঙ্গে আছি।” দলীয় সূত্রের খবর, শিলিগুড়ি টাউন এক কমিটির অধীনে এই পৌরসভার 17 টি ওয়ার্ড রয়েছে। যে কমিটির সভাপতি হিসেবে রয়েছেন সঞ্জয় পাঠক।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে টাউন 2 কমিটির অধীনে পৌরসভার 16 টি ওয়ার্ড রয়েছে। তার সভাপতি দেবব্রত দত্ত। আর টাউন তিন নম্বর কমিটির অধীনে যে 14 টি ওয়ার্ড রয়েছে, লোকসভা ভোটের বিপর্যয়ের পর সেই ওয়ার্ডগুলোর সভাপতি পদ থেকে জয়দীপ নন্দীকে সরিয়ে দেওয়া হলে এবার তার দায়িত্ব কাউন্সিলর দুলাল দত্তকে দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন রঞ্জন সরকার। কিন্তু হঠাৎ এই পদে পরিবর্তন কেন!

এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূলের সভাপতি বলেন, “দলের জেলা পর্যবেক্ষক তথা পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের অনুমতি নিয়েই ওই পদের দায়িত্ব দুলালবাবুকে দেওয়া হয়েছে। উনি দীর্ঘদিনের কাউন্সিলর, দক্ষ সংগঠক। আশা করছি, এবার সংশ্লিষ্ট কমিটি আরও চাঙ্গা হবে।” তবে এই ব্যাপারে এতদিন সেই পদে থাকা জয়দীপবাবুর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলেও তা সম্ভব হয়নি। কিন্তু শুধু কি সভাপতি পদ পরিবর্তন, নাকি শাখা সংগঠনের দিকেও নজর দেবেন জেলা তৃণমূলের নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত সভাপতি রঞ্জন সরকার!

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই তিনি জানিয়ে দিয়েছেন যে, শুধু মাদার সংগঠন নয়, ছাত্র, যুব সংগঠনেও ধীরে ধীরে পরিবর্তন আনবেন তিনি। সেক্ষেত্রে রঞ্জনবাবু যাদের সরিয়ে সেই পদে নতুন মুখ আনবেন, পুরনো দিনে দলের হাল ধরা সেই সমস্ত মানুষগুলো ক্ষুব্ধ হয়ে দলের বিরুদ্ধে কোনো সিদ্ধান্ত নেন কিনা! সেদিকেও তাকিয়ে রয়েছেন অনেকে। সব মিলিয়ে নতুন দায়িত্ব পেয়েই এবার একের পর এক পরিবর্তন এবং সংগঠনকে চাঙ্গা করার কাজে নেমে পড়লেন শিলিগুড়ির রঞ্জন সরকার।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!