এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > একুশে জুলাই এর মঞ্চে তৃণমূলের ঘর ভাঙবে বিজেপি দাবী মুকুল রায়ের

একুশে জুলাই এর মঞ্চে তৃণমূলের ঘর ভাঙবে বিজেপি দাবী মুকুল রায়ের

তিনি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন প্রায় একবছর হতে চললো। গত বছর নভেম্বরের ৩ তারিখ নাগাদ গেরুয়া ঝান্ডা তুলে নিতে দেখা গেছিল তাকে। কথা হচ্ছে প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা অধুনা বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের। শাসকদলের শিবির থেকে বেরিয়ে আসার পরই বার বার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক ভূমিকায় দেখা গেছে মুকুল বাবুকে। সম্প্রতি ২১ জুলাই-এ তৃণমূলের বার্ষিক স্মরণভা উপলক্ষে মহা জনসমাবেশের আয়োজন নিয়ে উওেজনা তুঙ্গে রয়েছে শাসকশিবিরে। এই জনসভা থেকেই লোকসভা ভোটের জন্য হুংকার ছাড়বেন নেত্রী। দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যেও বিশেষ বার্তা দেবেন এটাও জানা গেছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর তৃণমূল কংগ্রেসের এই তোড়জোড়ের মধ্যে বিরোধীশিবির থেকে ভেসে এল হুঁসিয়ারী মন্তব্য। বক্তা খোদ শাসকদলের প্রাক্তন নেতা মুকুল রায়। ‘একুশে জুলাই-এর মঞ্চেই তৃণমূল কংগ্রেস ভাঙবে।’ এমনটাই হুমকি দিলেন জনসভার ২৪ ঘন্টা আগেই। জানালেন,২১ শে’ র মঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন বক্তব্য শেষ করবেন তারপরই আসল খেলা শুরু করবেন তিনি বালুরঘাটে। পঞ্চাশ হাজার রাজনৈতিক কর্মীকে বিজেপিতে যোগদান করিয়ে লোকসভা ভোটের আগেই তৃণমূলের সংগঠনে ফাটল ধরানোর পরিকল্পনা তাঁর। আর এই পঞ্চাশ হাজার কর্মীদের বেশিরভাগই নাকি হবে শাসকদলের। এমনটাই হুমকি দিলেন তিনি।

রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে আরো জানা যাচ্ছে যে, দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে গুলমোহর থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ২১ জুলাই-এর ভাষণ শুনবেন তিনি। বিজেপিতে যোগদানের পর এই তাঁর প্রথম ২১-এর বক্তব্য শোনা। তাই নেত্রীকে চাপে ফেলতে আগেই দাবার ঘুঁটি চাল পাতিয়ে রেখেছেন তিনি। তাঁর এই মহৎ কার্যে তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন রাজ্যবিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় এবং রাজ্যবিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শনিবারেই মালদার একটি জনসভায় অংশগ্রহনের পরই বালুরঘাটে আসবেন তিনি।

দলীয় সূত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে,প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ নাকি শনিবার বিজেপির টিকিট কাটতে চলেছেন। এছাড়া সঙ্গে আনছেন ১০০০ কংগ্রেস কর্মীকে। এছাড়া তৃণমূল এবং সিপিএম-এর থেকে দলে দলে লোক ভীড়বার ইঙ্গিত রয়েছে বিজেপি শিবিরে। সবমিলিয়ে লোকসভা ভোটে বিজেপির পাল্লা ভারী হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে এ মুহূর্তে। উল্লেখ্য,বিজেপির দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা সম্পাদক শুভেন্দু সরকার ওরফে বুলা এখন হাজতবাস করছেন একটি মামলায় বিচারাধীন অবস্থায়। তৃণমূলই ষড়যন্ত্র করে তাঁকে ফাসিয়েছে,এমনটাই অভিযোগ পদ্মশিবিরের। সূত্রের খবর,মুকুল রায় এদিন শুভেন্দু অধিকারীর বাড়ি থেকেও ঢু মেরে এসেছেন এদিন। আপাতত সবমিলিয়ে কালকে তৃণমূলের ২১ জুলাই এর জনসভার পর রাজ্য রাজনৈতিক স্তরে বেশ কিছু পটপরিবর্তন হতে চলছে। তাঁর আভাসে এই মুহূর্তে গমগম করছে রাজনৈতিকমহলের আবহাওয়া।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!