এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > দল ভাঙানোয় বড়সড় ধাক্কা খেলেন মুকুল রায়, তৃণমূলেই ফিরে গেলেন ‘সবেধন নীলমনি’

দল ভাঙানোয় বড়সড় ধাক্কা খেলেন মুকুল রায়, তৃণমূলেই ফিরে গেলেন ‘সবেধন নীলমনি’

একদা রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের অঘোষিত দুনম্বর নেতা দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েই ঘোষণা করেছিলেন ‘উইয়ের ঢিপির’ উপর বসে আছে তৃণমূলের সংগঠন, একটু ণর দিলেই নাকি ঝুরঝুর করে তা ভেঙে পড়বে। আর সেই কথামত তিনি তিনি নেমেছিলেন দল ভাঙানোর খেলায়, সেভাবে কোনো বড় তৃণমূলী নেতা তাঁর হাত ধরে বিজেপি শিবিরে নাম না লেখালেও অল্পসল্প সাফল্য যে আসছিলো না তা কিন্তু নয়। দলের সাথে দূরত্ত্ব বাড়তে থাকা বহু তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী-নেতারাই তাঁর হাত ধরে গেরুয়া শিবিরে আসেন। কিন্তু এবার সেই বিজেপিতে নাম লেখানো নেতার থেকেই বড় ধাক্কা খেলেন বিজেপির তরফে পঞ্চায়েতের দায়িত্ত্ব পাওয়া নেতা মুকুল রায়।

মুকুল রায়ের সঙ্গ ত্যাগ করে আবার তৃণমূলে যোগদান, রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে মাস্টারস্ট্রোক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মুকুল রায় দলত্যাগের পরেও তাঁর ছায়াসঙ্গী হয়ে ছিলেন ডেবরার প্রাক্তন বিধায়ক রাধাকান্ত মাইতি। মুকুল রায়ের অনুগত হওয়ায়, এর আগে তৃণমূল রাধাকান্ত বাবুকে টিকিট দেয় নি ২০১৬ এর বিধানসভায় বলে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা ছিল, ফলে ক্ষোভ জন্মায় তাঁর মধ্যে। কিন্তু সূত্রের খবর বেশ কিছুদিন ধরেই রাজ্যের শাসক দলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন তিনি। এরপরই এদিন বিধানসভায় এসে তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সাথে দেখা করা দলে ফেরার আবেদন জানান রাধাকান্ত বাবু। পুরোনো যোদ্ধার দলে ফেরাকে নৈতিক জয় হিসাবে দেখছে তৃণমূল। পঞ্চায়েতের আগে রাধাকান্ত মাইতির তৃণমূলে ফিরে যাওয়া গেরুয়া শিবিরের কাছে বড় ধাক্কা বলেই মনে করছেন সংশ্লিষ্ট মহল।

Top
error: Content is protected !!