এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > নেত্রীর ছবি দেওয়া পতাকায় পা দিয়ে দাঁড়ানো তৃণমূল নেতার ছবি ভাইরাল, অভিযোগ দায়ের থানায়

নেত্রীর ছবি দেওয়া পতাকায় পা দিয়ে দাঁড়ানো তৃণমূল নেতার ছবি ভাইরাল, অভিযোগ দায়ের থানায়

একুশে জুলাই রাজ্যে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দলের নেতাকর্মীরা ধর্ম তলায় যোগ দেওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন এবং সেই সমস্ত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হয়। বাদ যায়নি ঝালদা ও। ঝালদা স্টেশন থেকে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ধর্মতলার উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছেন এরকম একটি ছবি পাওয়া যায়। কিন্তু ছবিতে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল নেতা ও ঝালদা ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেস চেয়ারম্যান সমীর মাহাতো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ও দলীয় পতাকায় পা দিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন।ছবিটি মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। এরপর দলের কর্মীদের কাছ থেকে উঠে আসে কটূক্তি এবং বিরোধীদের কাছ থেকে কটাক্ষ। তৃণমূল কর্মীদের কাছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মায়ের সমান এবং দল তৃণমূল মন্দিরের থেকে কম নয় সুতরাং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূলের লোগোর উপর পা দিয়ে দাঁড়ানো চরম গর্হিত অপরাধ আর সেটা তৃণমূলের কর্মীর কাছ থেকে কোনমতেই আশাপ্রদ নয়। ফলে তোলপাড় হয়ে সোশ্যাল মিডিয়া।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

ঘটনার খবর জানার পরই সমীরবাবু জানান এই ছবিটা তাঁর হলেও ছবিতে যা দেখা যাচ্ছে সেটা সত্যি নয়। এই ছবিটা ঝালদা স্টেশনে তোলা। ধর্মতলা যাওয়ার জন্য যখন তারা ঝালদা স্টেশনে পৌঁছান তারপরই এই ছবি তোলা হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর দলের পতাকার উপর পা দিয়ে দাঁড়ানোর কথা স্বপ্নেও তিনি ভাবতে পারেন না এই ছবি তাঁকে এবং তাঁর দলকে অসম্মান করার উদ্দেশ্যেই করা হয়েছে। এবং তাঁকে বিপাকে ফেলতে,ও দলের কাছে তাঁর ভাবমূর্তি নষ্ট করতেই করা হয়েছে। তবে কে বা করা এটি করেছে তা তিনি বুঝতে পারছেন না। আর তাই এই নিয়ে ঝালদা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তাকে ফাঁসানো হচ্ছে, এই ঘটনার দ্রুত তদন্ত করে দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তির দাবিও তুলেছেন।পাশাপাশি দলের শীর্ষ নেতৃত্বকেও জানিয়েছেন বিষয়টি নিয়ে।

তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে দল স্বীকার করেছে যে ছবিটি বিকৃত করা হয়েছে। এ নিয়ে দলের সহসভাপতি রবীন্দ্রনাথ জানান ছবিটি দেখেই বোঝা যাচ্ছে এটি ফটোশপ করা হয়েছে। সমীরবাবু তৃণমূলের সঙ্গে দীর্ঘদিন আছেন,তিনি দলের একনিষ্ঠ কর্মী।তিনি এই কাজ করতেই পারেন না। তাঁর সঙ্গে পেরে না উঠে তাকে অসম্মান করতেই এবং দলকে অসম্মান করতেই এই কাজ করেছে কেউ। আমরা তার পূর্ণ তদন্ত চাই এবং দোষীদের শাস্তি দাবি করছি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!