এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > দিল্লিতে তৃণমূল নেত্রী – মোদী বিরোধী মুখ হিসেবে কি আরও এগিয়ে গেলেন দৌড়ে?

দিল্লিতে তৃণমূল নেত্রী – মোদী বিরোধী মুখ হিসেবে কি আরও এগিয়ে গেলেন দৌড়ে?

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলা থেকেই সারা দেশে বিজেপি বিরোধিতায় আওয়াজ তুলেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে বিভিন্ন তদন্তের জন্য রাজ্যের পুলিশকর্তাকে জেরা করতে আসা থেকে শুরু করে কেন্দ্রের প্রায় বিভিন্ন ইস্যুকে কেন্দ্র করেই যেনতেন প্রকারে কেন্দ্রের বিরোধিতায় রাস্তায় নেমে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে ভোটব্যাংককে শক্ত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন তৃণমূল নেত্রী।

সম্প্রতি কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআই হানার ঘটনায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে আশ্চর্যজনকভাবে ধর্মতলার মেট্রো চ্যানেলে রীতিমতো ধরনায় বসে যেতে দেখা যায় সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

হাতের মুঠোয় আরও সহজে প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে যোগ দিন –

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

এদিকে একজন মুখ্যমন্ত্রী এইভাবে আদৌ কোনো তদন্তকারী সংস্থার বিরুদ্ধে রাস্তায় বসে রাজ্যের প্রশাসনিক কর্তা ব্যক্তিদের নিয়ে ধরনা করতে পারেন কিনা তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন তোলা হলেও কেন্দ্রের বিরোধিতায় যেন নাছোড়বান্দা হিসেবেই দেখা যায় রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানকে।

তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বিষয়টিকে খুব একটা ভালো চোখে নেয়নি রাজনৈতিক মহলের একাংশ বলেই খবর। আর আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভবিষ্যতের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে রাজ্যের শাসকদলের নেতা- মন্ত্রীরা যখন তুলে ধরতে চাইছেন, ঠিক তখনই রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করছেন যে, তৃনমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উপলব্ধি করেছেন যে, বাংলায় থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে শুধু আওয়াজ তোলাই নয়, জাতীয় রাজনীতিতেও গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে আক্রমণ আরও তীব্রতর করতে হবে।

আর তাইতো এবার দিল্লি থেকে সেই বিরোধী মহাজোটের সমস্ত নেতা নেত্রীদের নিয়ে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। আর দেশের রাজধানীতে দাঁড়িয়ে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিজেপি বিরোধী এই সমাবেশ তৃণমূল নেত্রীকে দেশে বিজেপি তথা মোদী বিরোধী মুখ হিসেবে অনেকটাই এগিয়ে দিল বলে দাবি করতে শুরু করেছেন ঘাসফুল শিবিরের নেতা নেত্রীরা।

তবে ঘাসফুল শিবিরের এহেন দাবিকে গুরুত্ব দিতে নারাজ গেরুয়া শিবিরের কার্যকর্তারা। তাঁদের দাবি, বর্তমানে বিরোধী মহাজোটে একাধিক নেতা নেত্রীরা রয়েছেন। যারা প্রত্যেকেই প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য দৌড়ে রয়েছেন। ফলে সেই দিক থেকে বিরোধী মহাজোটের আদতেও কোনো সারবত্তা নেই।

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় ফিরবে নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারই। তবে রাজধানী দিল্লির বুকে দাঁড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি ও নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে আক্রমণ শানালেও কে শেষ হাসি হাসে তা দেখবার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে আগামী লোকসভা নির্বাচনের ভোটবাক্স খোলা পর্যন্ত।

Top
error: Content is protected !!