এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > যে কোনো মুহূর্তে সিবিআই হানা দিতে পারে মমতা ব্যানার্জির বাড়িতে? আশঙ্কায় রয়েছেন তৃনমূল নেত্রী

যে কোনো মুহূর্তে সিবিআই হানা দিতে পারে মমতা ব্যানার্জির বাড়িতে? আশঙ্কায় রয়েছেন তৃনমূল নেত্রী

কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়েই তৃনমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করতেন যে, উদ্দেশ্যপ্রনোদিতভাবে বিরোধীদের ওপর সিবিআই, ইডির মত এজেন্সিকে দিয়ে আমাদের ওপর চাপ দেওয়া হচ্ছে।

এমনকি কিছুদিন আগেই কোলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআই হানা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে দেশের গণতন্ত্র ও সংবিধান প্রতিষ্ঠার দাবিতে মেট্রো চ্যানেলে ধরনায় বসে পড়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এই ঘটনার জেরেই তীব্র আকার নেয় কেন্দ্র বনাম রাজ্যের সংঘাত।

আর এবার দিল্লিতে পা রেখে সেই কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সিবিআই দিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগ তুলে সোচ্চার হয়েছেন তৃনমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, দিল্লির যন্তরমন্তরে আমি আদমি পার্টির ধরনা মঞ্চ থেকে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এই সরকারের সিবিআই, এজেন্সি দিয়ে ভয় দেখানো ছাড়া আর কোনও কাজ নেই। কিন্তু এইভাবে ভয় দেখিয়ে কোনো লাভ হবে না। হয়তো মোদীবাবুর বিরোধিতা করবার জন্য কালই আমার বাড়িতে সিবিআই পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে। তবে কবে সিবিআই আসবে তা একটু আগে থেকে জানিয়ে রাখবেন। আমি নিজে হাতে নিরামিষ, আমিষ বা রুটি বানিয়ে রাখবো।”

অন্যদিকে এদিনের এই ধরনা মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধেও তোপ দেগে তৃণমূল নেত্রী বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নিজের জয়েন্ট সেক্রেটারি, আইপিএস আইএস এবং নিজের মন্ত্রীদের উপরও বিশ্বাস রাখেন না। সকলের উপর তিনি নজরদারি চালাচ্ছেন। দেশজুড়ে একটি ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।”

তবে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর এদিনের বক্তব্যের বেশিরভগটাই বিভিন্ন জায়গায় কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে রাজ্যকে হেনস্থা করার অভিযোগ তুলে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে তোপ দাগার চেষ্টা করলেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!