এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ইচ্ছুকদের দ্রুত দল ছেড়ে চলে যাওয়ার ছাড়পত্র সমেত দলত্যাগীদের বড়সড় হুঁশিয়ারি নেত্রীর

ইচ্ছুকদের দ্রুত দল ছেড়ে চলে যাওয়ার ছাড়পত্র সমেত দলত্যাগীদের বড়সড় হুঁশিয়ারি নেত্রীর

লোকসভা ভোটে তৃনমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানের পরেই শাসকদল ছেড়ে একাধিক জনপ্রতিনিধিরা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে শুরু করেন। একের পর এক কাউন্সিলর এবং বিধায়করা দল ছেড়ে পদ্ম শিবিরে নাম লেখানোয় কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে পড়েছেন তৃণমূল। তবে প্রকাশ্যে অবশ্য তারা যে এই দলবদলের ফলে অস্বস্তিতে পড়ছেন তা কাউকে বুঝতে দিতে নারাজ ছিলেন তৃনমূল নেত্রী।

“যে যাওয়ার সে চলে যাক, কেউ গেলে তিনি আবার তৈরি করে নেবেন” বলে কিছুদিন আগেই জানিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি প্রয়োজনে রাস্তার ধারে আড্ডা দেওয়া বখাটে ছেলেদের এনে তিনি তৃণমূলকে আরও শক্তিশালী করবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছিলেন। এমতাবস্থায় গতকাল নজরুল মঞ্চে তৃণমূলের সমস্ত কাউন্সিলরদের নিয়ে একটি বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। আর সেখানেই উপস্থিত হয়ে দলবদলুদের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দিতে দেখা গেল তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

এদিন তিনি বলেন, “যারা যেতে চান তাড়াতাড়ি চলে যান। তৃণমূলকে দুর্বল ভাবার কোনো কারণ নেই। একজন গেলে আমি নতুন করে 500 জন তৈরি করব।” এদিকে সম্প্রতি বেশকিছু জনপ্রতিনিধি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গেলেও তারা ফের তৃণমূলে আসতে চাইছে বলে বিভিন্ন মহলের তরফে দাবি করা হলে এদিন সেই প্রসঙ্গেও দলের নেতৃত্বকে সমঝে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

 

মঞ্চে উপস্থিত তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী এবং পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমকে উদ্দেশ্য করে তৃণমূল নেত্রী বলেন, “আজ চলে যাব, আবার দুদিন বাদে পায়ে ধরে দলে ফেরত আসতে চাইবে, এসব বন্ধ করুন। তবে পুরনো কর্মীরা যদি কোথাও অভিমানে দল ছেড়ে থাকে, তাদের কারণ দেখে দলে ফেরানো যেতে পারে।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, ক্ষমতায় আসার সাথে সাথে তৃণমূলেও যে সুবিধাবাদীদের ভিড় বেড়ে গেছে তা ভোটের খারাপ ফলাফলেই বুঝতে পেরেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাইতো এখন যারা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাচ্ছে তাদের যাতে আর নেওয়া না হয়, তার জন্য এদিন সকলকে সতর্ক করে দিলেন তিনি।

অন্যদিকে নিজের প্রাক্তন সঙ্গী তথা বর্তমান বিজেপি নেতা মুকুল রায় এবং তার পুত্র শুভ্রাংশু রায়কেও কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “আমাদের ভুল হয়েছিল বিকাশ বসুর স্ত্রী মঞ্জু বসুকে টিকিট দেওয়া উচিত ছিল। তাকে না দিয়ে এক বাবা দল করত তার ছেলেকে টিকিট দেওয়া হয়েছিল। এসব থেকে এবার দলকে বার করতে হবে। দলের প্রতি নিবেদিতপ্রাণ বাবা ছেলেকে আমরা টিকিট দেব। আজ তৃণমূল, কাল কংগ্রেস, পরশু বিজেপি এসব আর হবে না।”

লোকসভা ভোটের ফলাফলের পর যেভাবে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক বাড়ছে, তাতে যারা চলে যেতে চায় তারা অবিলম্বে চলে যাক এবং তাদের যাতে আর না ফেরানো হয়, তার কথা বলে দলে শুদ্ধিকরণের ডাক দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!