এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > স্বয়ং তৃণমূল নেত্রীর চিন্তা বাড়িয়ে কর্মচারী সংগঠন আত্মপ্রকাশ করার সাথে সাথেই তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের যোগ

স্বয়ং তৃণমূল নেত্রীর চিন্তা বাড়িয়ে কর্মচারী সংগঠন আত্মপ্রকাশ করার সাথে সাথেই তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের যোগ


লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানের পরই শাসক দলের একাধিক জনপ্রতিনিধিরা গেরুয়া শিবিরে নাম লাগাতে শুরু করেন। যা নিয়ে প্রবল অস্বস্তিতে পড়েছেন তৃণমূল। এমনকি এই দলবদলের পালা কি করে রোধ করা যায় তা নিয়েও চলে জোর চর্চা।

এই পরিস্থিতিতে এবার পুরুলিয়ায় নিজেদের কর্মচারী সংগঠন আত্মপ্রকাশ করল গেরুয়া শিবির। যা আত্মপ্রকাশ করার সাথে সাথেই তৃণমূল ছেড়ে বিপুল কর্মী সমর্থক যোগ দিলেন বিজেপিতে। সূত্রের খবর, এদিন পুরুলিয়ার একটি ধর্মশালায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রায় শতাধিক কর্মচারী বিজেপিতে যোগ দেন। যেখানে তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন পুরুলিয়া জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক বিবেক রাঙা ও পুরুলিয়া শহর বিজেপি সভাপতি সত্যজিৎ অধিকারী।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু কেন তারা বিজেপিতে যোগদান করলেন! এদিন এই প্রসঙ্গে যোগদানকারীরা বলেন, “তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতার অঙ্গুলিহেলনে শহরের বাসস্ট্যান্ডে দুর্নীতি চলছে। তাই বাসস্ট্যান্ডে বিজেপি পরিচালিত সংগঠন প্রতিষ্ঠা হলে সেই দুর্নীতি বন্ধ করা যাবে।” অন্যদিকে বিজেপির পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, শাসক দলের দুর্নীতির জেরেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মী-সমর্থকরা বিজেপিতে যোগদান করেছেন।

বস্তুত, পুরুলিয়া লোকসভায় বিজেপির জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো জয়লাভ করার পর থেকেই এখানে বিভিন্ন দল থেকে বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক পড়ে যায়। আর এবার কর্মচারী সংগঠনেও প্রচুর কর্মী সমর্থক যোগদান করায় বিজেপির শক্তি এখানে অনেকটাই বাড়ল বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!