এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > তোলাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা, জেনে নিন

তোলাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা, জেনে নিন

Priyo Bandhu Media

অবশেষে এবার গ্রেপ্তার হলেন বাঁকুড়ার প্রাক্তন পৌরপ্রধান তথা তৃণমূল নেতা শান্তি সিংহ। বস্তুত, আদালতে হাজিরা না দেওয়ার অভিযোগে এই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে আগেই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল।

সেইমত মঙ্গলবার তাঁকে গ্রেপ্তারের পর পুলিশের পক্ষ থেকে বাঁকুড়া আদালতে তোলা হলে বিচারক সেই শান্তি সিংহের 14 দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন। কিন্তু ঠিক কি কারণে তাকে গ্রেফতার করা হল! জানা যায়, 1994 সালে কংগ্রেসের টিকিটে প্রথমবার জিতে পুর প্রধান হয়েছিলেন এই শান্তি সিংহ।

পরবর্তীতে তৃণমূলের টিকিটে জয়ী হয়ে তিনি পুরপ্রধানের দায়িত্ব সামলান। কিন্তু গত পুরভোটে বাঁকুড়া শহরের 6 নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে পরাজিত হতে হয় তাকে। আর এহেন শান্তি সিংহের বিরুদ্ধে মূলত তিনটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা বেরিয়েছিল বলে এদিন আদালতে জানান অভিযোগকারীদের পক্ষের আইনজীবী সুজিত ঘোষ।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “শান্তি সিংয়ের বিরুদ্ধে তিন ব্যক্তির কাছ থেকে বহু বছর আগে লক্ষাধিক টাকা নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু সময়মত তা তিনি ফেরত না দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে সেই ব্যক্তিরা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। তবে শান্তিবাবুকে আদালত টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দিলেও শান্তি সিংহ চেক তুলে অভিযোগকারীদের দিয়েছিলেন বটে। কিন্তু অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় সেই চেক বাউন্স হয়ে গিয়েছিল।

যার ফলে সেই শান্তি সিংহকে আদালতে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিলেও তিনি হাজিরা না দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।” অন্যদিকে এই ব্যাপার পাল্টা তার মক্কেলকে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানো হয়েছে বলে জানান সেই শান্তি সিংহের আইনজীবী প্রসেনজিৎ ঘোষ।

এদিকে বাঁকুড়ার প্রাক্তন পৌরপ্রধান তথা তৃণমূল নেতা শান্তি সিংহের গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে এদিন বাঁকুড়া সংসদীয় জেলা তৃণমূল সভাপতি শুভাশিস বটব্যালকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, “আমি এখন কলকাতায় রয়েছি। ঘটনাটা নিয়ে বিস্তারিত খোঁজখবর নিচ্ছি।” সব মিলিয়ে এবার তোলাবাজির অভিযোগে তৃণমূল নেতা গ্রেপ্তারে জোর চাঞ্চল্য সৃষ্টি হল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!