এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > তৃণমূল নেতা খুনে নতুন মোড় – ইঁট দিয়ে মাথা থেঁতলে খুন, ধৃত ৭০ বছরের সন্দেহভাজন

তৃণমূল নেতা খুনে নতুন মোড় – ইঁট দিয়ে মাথা থেঁতলে খুন, ধৃত ৭০ বছরের সন্দেহভাজন

অবশেষে ভেদ হল রহস্য। মধ্যমগ্রামের দিগবেড়িয়া এলাকার কারখানা চত্বরে মধ্যমগ্রাম পুরসভার  তৃনমূল কংগ্রেসের 1 নং ওয়ার্ডের সভাপতি সুধীর দাসকে খুনের ঘটনায় তাঁরই সহকর্মী 70 বছর বয়সী শিবপদ সরকারকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। জানা যায়,  শনিবার সকালে কারখানা চত্বরে কাজে গেলেও আর বাড়ি না ফেরায় রবিবার ভোররাতে সেই কারখানার পাশে একটি সেপ্টিক ট্যাঙ্কীর ভেতরে মেলে সুধীর দাসের মৃতদেহ।

পুলিশ সূত্রের খবর, এই ঘটনায় ওই কারখানারই নিরাপত্তারক্ষীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জানা গেছে, শনিবার এই শিবপদ সরকারের ডিউটি সকাল 6 টায় শেষ হলে সুধীর দাসের ডিউটি ছিল সকাল 6 টা থেকে। এখানেই জেলায় পুলিশ ধৃত শিবুকে সুধীরবাবু কারখানায় ঢুকেছে কি না তা তিনি দেখেছেন কি না সেই ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে শিবু তা অস্বীকার করায় পুলিশের সন্দেহ হয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

পরে অবশ্য জেরায় সুধীর দাস স্বীকার করে যে সকাল 6 টায় সুধীর কাজে যোগ দিতে আসার সময় তাঁর সাথে একটি গোপন কথা রয়েছে বলে সেপটিক ট্যাঙ্কের কাছে নিয়ে গিয়ে একটি ইট দিয়ে সুধীর দাসেল মাথায় সজোরে আঘাত করলে মাটিতে পড়ে যান তিনি। আর এরপরই মৃতদেহটি যাতে কারও নজরে না আসে সেই কারনে সেপটিক ট্যাঙ্কে তা ঢুকিয়ে তার ওপর পলিথিন চাপা দিয়ে দেয় এই শিবপদ সরকার।

তদন্তে নেমে সিসিটিভিতে একই রাস্তা দিয়ে মৃত সুধীর দাস ও ধৃত শিবপদ এই সরকার দুজনকে যেতে দেখে সন্দেহ হয় পুলিশের। আর তারপরই গ্রেপ্তার করা হয় এই 70 বছরের শিবপদ সরকারকে। এ প্রসঙ্গে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “ঘটনায় শিবুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে  নিজের অপরাধ স্বীকার করায়তাঁকে পুলিশি হেফাজতেও নেওয়া হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্ত চলছে।।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!