এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দিলেন শীর্ষ স্তরের দুই হেভিওয়েট নেতা

ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দিলেন শীর্ষ স্তরের দুই হেভিওয়েট নেতা

Priyo Bandhu Media

ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দিলেন শীর্ষ স্তরের দুই
হেভিওয়েট নেতা। এমনি ঘটনার সাক্ষী থাকলো মালদা। এদিন শীর্ষ স্তরের দুই নেতা প্রকাশ্যেই একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনলেন। আর এই নেতারা হলেন প্রাক্তন চেয়ারম্যান কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরি এবং বর্তমান চেয়ারম্যান নীহাররঞ্জন ঘোষ।বাজেট পেশ হাওয়ায় সদস্যপদ খারিজ হওয়া কাউন্সিলর বর্ণালী কুণ্ডু হালদার উপস্থিত ছিলেন আর তাই ঘিরেই শুরু বিতর্ক। ওই ওই পৌরসভার বর্তমান কাউন্সিলর হলেন কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরি। তাই বার্নালিদেবী কিভাবে উপস্থিত থাকতে পারে তাই নিয়ে প্রশ্ন তোলেন,এই নিয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান নীহাররঞ্জন ঘোষ বলেন বর্ণালীদেবী নির্বাচন কমিশনের ওই নির্দেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন সেখানে হাইকোর্টই নির্দেশ দিয়েছে,যে অন্য কাউন্সিলরদের সম্মতি থাকলে বর্ণালীদেবী পৌরবোর্ডের বৈঠকে উপস্থিত থাকতেই পারেন। তাই তিনি এখানে। সে কথা মানতে নারাজ কৃষ্ণেন্দুবাবু অভিযোগ করেন যে এমন কোনো নির্দেশ দেয়নি আদালত পাশাপাশি বর্ণালীদেবী সিপিআইএমের কাউন্সিলর।নীহারবাবু এর উত্তরে বলেন যে,“বর্ণালীদেবী কলকাতায় তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন অনেক আগেই। এখন তিনি তৃণমূলের সক্রিয় নেত্রী।”পাশাপাশি নাম না করে কৃষ্ণেন্দুবাবুকেও একহাত নেন তিনি। তিনি অভিযোগ করে প্রশ্ন তোলেন যে, “যিনি এত কথা বলছেন, তিনি নিজেই তো পৌরসভার বৈঠকে সিপিআইএমের জায়গায় গিয়ে বসেন। তাহলে কে তৃণমূল আর কে সিপিআইএম ?” “আইন ও দলনেত্রীর নির্দেশ না মেনে তাঁর প্রতি হিংসা থেকে এসব নোংরামি করছেন কৃষ্ণেন্দুবাবু”এমন অভিযোগ ও তোলেন ।
অন্যদিকে কৃষ্ণেন্দুবাবু অভিযোগ করে বলেন যে ,“আমিও মন্ত্রী ছিলাম, বিধায়ক ছিলাম, এই পৌরসভার চারবারের চেয়ারম্যানও ছিলাম। বিরোধী কাউন্সিলরদেরও সম্মান দিতাম। সেখানে আমরা তো তৃণমূলেরই কাউন্সিলর। আমাদের ওয়ার্ডের কাজের জন্য টাকা দেন না উনি। কোথাও কোনও কাজ হচ্ছে না। উনি যা ইচ্ছে তাই করছেন।”একদিকে নেত্রী সমস্ত গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মিটিয়ে একসাথে কাজ করার নির্দেশ দিচ্ছেন আর অন্যদিকে এইভাবে প্রকাশ্যে দ্বন্দ্ব ছাড়ানোর ফলে কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে আছে তৃণমূল। এখন দেখার যে আগামী দিনে কি ব্যাবস্থা নেন নেত্রী।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!