এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > তৃণমূলে কি হোলটাইমার নিয়োগ! কটাক্ষের সুর বিরোধীদের

তৃণমূলে কি হোলটাইমার নিয়োগ! কটাক্ষের সুর বিরোধীদের

লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস খুব একটা ভালো ফল করতে পারেনি। 42 এ 42 এর স্লোগান তুললেও 22 টির বেশি আসন পার করতে পারিনি তারা। অপরদিকে বিজেপি আঠারোটির মত আসন নিজেদের দখলে রেখেছে। আর দলের এই খারাপ ফলাফলের পরই দলীয় সংগঠনকে চাঙ্গা করে আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে যাতে ভালো ফল করা যায়, তার জন্য মরিয়া চেষ্টা চালাতে শুরু করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী।

ইতিমধ্যেই সংগঠন এবং দলের স্বচ্ছ ভাবমূর্তি সাধারণ মানুষের সামনে উপস্থাপিত করতে ভোট স্ট্র্যাটেজিস্ট হিসেবে পরিচিত প্রশান্ত কিশোরকে নিয়োগ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে ইতিমধ্যেই তৃণমূলের একাধিক সিদ্ধান্তের পেছনে সেই ভোটগুরুর হাত রয়েছে বলে মত রাজনৈতিক মহলের। আর এই পরিস্থিতিতে এবার সিপিএম ও বিজেপির পথে হেটে বুথে বুথে নিজেদের সংগঠনকে বৃদ্ধি করতে তৎপর তৃণমূল।

বস্তুত, এবারে তৃনমূলের খারাপ ফলাফল হওয়ার পেছনে নিচুতলায় সংগঠন না থাকাকেই দায়ী করেছেন একাংশ। আর তাই ভবিষ্যতে বিধানসভা নির্বাচনের আগে যাতে সেই সংগঠন পাকাপোক্তভাবে তৈরি করে নেওয়া যায়, তার জন্য আজ নজরুল মঞ্চে প্রায় হাজার নেতাকে নিয়ে একটি বৈঠক করতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

সূত্রের খবর, দুটোর সময় নজরুল মঞ্চে এই বৈঠক শুরু হবে। আর এই বৈঠকেই রাজ্যের প্রতি বুথ পিছু হোল টাইমার বা সর্বক্ষণের কর্মী নিয়োগের ঘোষণা করতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানা গেছে, প্রতিবুথে চারজন করে কর্মী নিয়োগ করতে পারে তৃনমূল। যেখানে সারা রাজ্যে 70 হাজার বুথে প্রায় 3 লক্ষ কর্মী নিয়োগ করতে হবে তাদের।

প্রসঙ্গত, বিগত বাম সরকারের আমলে নিচুতলায় যাতে তাদের সংগঠন শক্তিশালী থাকে, তার জন্য তাদের দলে এই হোল টাইমারের সিস্টেম ছিল। আর এবার সেই সিপিএমের পথে হেঁটেই তৃণমূল নেত্রী হোলটাইমার নিয়োগের কথা ঘোষণা করতে পারেন বলে জল্পনা ছড়িয়েছে।

এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূলকে কটাক্ষ করে বিধানসভার বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “স্যান্ডো গেঞ্জির আবার বুক পকেট! একটা গুন্ডা, তোলাবাজদের দল। সেই তৃণমূলের নাকি হোলটাইমার!” সব মিলিয়ে এবার নজরুল মঞ্চের বৈঠক থেকে আদৌ কোনো এরূপ চমকপ্রদ ঘোষণা করেন কিনা তৃণমূল নেত্রী, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

Top
error: Content is protected !!