এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নেত্রীর নির্দেশে যুবরাজের তত্ত্বাবধানে, মোদী বিরোধিতায় মুখর হয়ে আরও ঝাঁ-চকচকে তৃণমূলের সরকারি ওয়েবসাইট

নেত্রীর নির্দেশে যুবরাজের তত্ত্বাবধানে, মোদী বিরোধিতায় মুখর হয়ে আরও ঝাঁ-চকচকে তৃণমূলের সরকারি ওয়েবসাইট

“বিজেপি নিজেদের আইটি সেলকে ব্যবহার করে বিভিন্ন জায়গায় বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য পেশ করছে” – এহেন অভিযোগ তুলে বিভিন্ন সময়ই সরব হতে দেখা গেছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে। এমনকি বিজেপির বিরুদ্ধে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য পেশ করার অভিযোগ তুললেও মুখে কার্যত তৃণমূলের অনেক নেতা মন্ত্রীরাই স্বীকার করে নিয়েছেন যে, তাদের থেকে এই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে প্রচারে বিজেপি অনেকটাই এগিয়ে।

কিন্তু সামনেই লোকসভা নির্বাচন। আর সেই লোকসভা নির্বাচনের আগে এবার রাজনৈতিক ময়দানে সেই বিজেপিকে যেমন জবাব দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস, ঠিক তেমনই প্রযুক্তিনির্ভর হওয়ারও চেষ্টা করছেন তারা। প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই তৃণমূলের নতুন লোগোকে জনসাধারণের কাছে পরিচয় করবার জন্য কফি মগ, টুপি, টি শার্ট সেই লোগোর মধ্যে সাঁটিয়ে তা বাজারে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু এবার সেই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটকেই হাতিয়ার করে বিজেপি ও মোদি বিরোধিতায় তীব্র সুর চড়াতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই নতুন রূপে এবং নতুন সাজে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো তথা যুব তৃনমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি এবং সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের তত্ত্বাবধানে থাকা তৃণমূলের সাইবার সেলের কর্মীরা চারটি বিভাগকে আলাদা আলাদা করে তৈরি করেছেন।

প্রথমে “বেস্ট বেঙ্গল” নামক বিভাগে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের বিস্তারিত খতিয়ান তুলে ধরা হচ্ছে‌। দ্বিতীয়তে “প্রমিস ও ডেলিভারি” নামক বিভাগে বিগত 2014 সালের লোকসভা ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঠিক কী কী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, এবং ক্ষমতায় আসার পরে তিনি সেই প্রতিশ্রুতিগুলো ঠিক কতটা রক্ষা করতে পেরেছেন তার পরিসংখ্যান তুলে ধরে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিতে উদ্যোগী রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে তৃতীয় বিভাগ “বিগ টক ওনলি বিজেপি” নাম দিয়ে সেখানে বিগত পাঁচ বছরে বিজেপির আমলে নানা প্রতিশ্রুতি দিলেও যেভাবে তা পূরণ করা হয়নি তার কথা তুলে ধরা হচ্ছে। আর সর্বশেষ বিভাগটির নাম “জুমলা মিটার” দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিভিন্ন সময়ে একই সুরে একই ধরনের মন্তব্য করেছেন এবং বাস্তবে যে প্রধানমন্ত্রীর এহেন মন্তব্যের সঙ্গে কোনো মিল নেই তার তথ্য তুলে ধরছে তৃণমূল।

রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, নিজেদের সাইবার সেলকে আরও শক্তিশালী করে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে সেই নেট দুনিয়ায় বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়াতে মরিয়া তৃনমূল কংগ্রেস। এতে করে সত্যিই কি কোনো সুফল হবে? রাজ্যের শাসকদলের এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের এক শীর্ষ নেতা বলেন, “নতুন প্রজন্মের শিক্ষিত ভোটারদের কাছে পৌঁছানোর অন্যতম মাধ্যমই হল ইন্টারনেট।

তাই একদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন আর অন্যদিকে কেন্দ্রের ভাওতাবাজ মোদি সরকারের মুখোশ এই প্রজন্মের কাছে খুলে দেওয়ার লক্ষ্যেই নতুন বিভাগগুলি যুক্ত করে গোটা সাইটটি ঝা চকচকে করা হয়েছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!