এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > গৌড়বঙ্গ‌ বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান বিক্ষোভে টিএমসিপি

গৌড়বঙ্গ‌ বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান বিক্ষোভে টিএমসিপি

গৌড়বঙ্গ‌ বিশ্ববিদ্যালয় এর অধীন কলেজগুলিতে ত্রুটি মুক্ত ফল প্রকাশের দাবি নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে সামিল হয় টিএমসিপি। বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরেও চলে বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি প্রদান । বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেন ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি প্রসূন রায়। তাঁর দাবি, ” অবিলম্বে ত্রুটিমুক্ত রিভিউ ফলপ্রকাশ করতে হবে। গ্রেস নম্বর দিয়ে ফলপ্রকাশের ঘটনায় যারা দায়ী তাদের চিহ্নিত করে, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। আগামীতে এমন ঘটনা যাতে না ঘটে তার দায়িত্বও নিতে হবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে। এই ঘটনায় ভুগতে হচ্ছে ছাত্রছাত্রীদের। ২০১৭ সালের জুলাই মাসে পরীক্ষা শেষ হলেও তার ফলপ্রকাশ হয় ২৮ নভেম্বর। কোনও বিশ্ববিদ্যালয় ফলপ্রকাশে এত সময় নেয় না। প্রকাশিত ফলেও প্রচুর অসঙ্গতি দুর করে ত্রুটিমুক্ত ফলপ্রকাশ করার ক্ষেত্রেও কোনও হেলদোল ‌নেই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের।”
গৌরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকের ১ম ও‌২য় সেমিষ্টারের ফল প্রকাশ হওয়ার পরই অসঙ্গতি ধরা পরে ও ‌সেই‌ নিয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। বর্তমান উপাচার্য স্বাগত সেন বিষয়টি তদন্তের ‌নির্দেশ দেন। তদন্তকারী কমিটর দেওয়া রিপোর্টে ভয়ংকর তথ্য উঠে‌ এসেছে। রিপোর্ট স্পষ্ট উল্লেখকারা যে প্রচুর ছাত্রছাত্রীকে ১ থেকে ৮ নম্বর পর্যন্ত গ্রেস দেওয়া হয়। এবং এর জেরেই এবছর পাশের হার বেড়েছে অনেকগুন। তবে এই বেআইনি কাজে যুক্ত ব্যক্তির নাম উল্লেখ নেই। তবে অনেকরই সন্দেহ এর পিছনে প্রাক্তন উপাচার্য গোপালচন্দ্র মিশ্র ও কন্ট্রোলার অব এগজামিনেশন সনাতন দাসের হাত থাকতে পারে। এরপর‌ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে রিভিউ এর ব্যবস্থা করে নতুন ফল প্রকাশ করার পরিকল্পনা করা হয়। আর আগামীকাল সেই‌ ফল প্রকাশিত হবে বলে খবর। আজ দুপুর থেকেই টিএমসিপি‌ জেলা সভাপতি প্রসূন রায়ের নেতৃত্বে সংগঠনের সদস্যরা বিক্ষোভ দেখায় পরে তাঁরা উপাচার্যের সাথে দেখা‌ করে তাঁর হাতে স্মারকলিপি তুলে দেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!