এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > হারানো জমি ফিরে পেতে নিজেদের কৃষক সেলকে দিয়ে কৃষকের জমির আগাচ্ছে সাফ করাচ্ছে তৃণমূল

হারানো জমি ফিরে পেতে নিজেদের কৃষক সেলকে দিয়ে কৃষকের জমির আগাচ্ছে সাফ করাচ্ছে তৃণমূল

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে অনেকটাই চাপে ফেলে দিয়েছে বিজেপি। সমাজের শ্রমিক থেকে কৃষক যারা এতদিন তৃণমূলের ওপর আস্থা রেখেছিল, তারাই এবারের নির্বাচনে বিজেপিকে সমর্থন করেছে। আর তার ফলেই তৃনমূল 34 থেকে 22 এ এবং বিজেপি 2 থেকে 18 তে পৌঁছে গিয়েছে।

কিন্তু সামনেই বিধানসভা নির্বাচন। যেখানে জোর টক্কর হবে তৃনমূল বনাম বিজেপির মধ্যে‌। আর তাই এখন দুই দলই আরও বেশি জনসংযোগে যেতে শুরু করেছে। সূত্রের খবর, বিধানসভা নির্বাচনের দিকে লক্ষ্য রেখে কৃষকদের মন জয় করতে শাসক দলের কৃষক সেলের কর্মীরা বিনা পারিশ্রমিকে জেলাজুড়ে প্রান্তিক ও সম্পন্ন আমনচাষিদের ধান খেতের আগাছা পরিস্কার অভিযানে নেমেছেন।

সেইসাথে চাষের কাজ করতে গিয়ে কোনও সমস্যায় পড়লে সরাসরি দিদিকে বলোর নম্বরে ফোন করে তা জানাতে বলার পরামর্শও দিচ্ছেন তাঁরা। জানা গেছে, আগামী ৭ সেপ্টেম্বর আলিপুরদুয়ারের বঞ্চুকামারীতে তৃনমূলের কিষাণ খেতমজুর সংগঠনের জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসছেন সেই সংগঠনের রাজ্য সভাপতি তথা প্রাক্তন কৃষিমন্ত্রী বেচারাম মান্না।

আর সভাপতি আগমনের আগে এই সংগঠনের সদস্যদের এই জনসংযোগ অভিযান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলেই মত বিশেষজ্ঞদের। ইতিমধ্যেই ৫০০ একর আমন খেতের আগাছা সাফা করে দিয়ে বিনা মজুরিতে শাসক দলের কৃষক সেলের এই আগাছা পরিস্কার অভিযান জেলায় তুমুল সাড়া ফেলেছে। জেলার রাজনৈতিক মহলও ব্যাপক চর্চাও শুরু হয়েছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

বস্তুত, সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির কাছে প্রায় আড়াই লক্ষ ভোটে পরাজিত হয়েছে তৃনমূল। কিন্তু আলিপুরদুয়ারে এবার তৃণমূলের 7 শতাংশ ভোট বেড়েছে। কিন্তু ভোট বাড়লেও বামেদের ভোট বিজেপির দিকে যাওয়াতেই লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের এই বিপর্যয় হয়েছে।

তাই এবার বামসহ বিভিন্ন বিরোধী দলের কৃষকদের মন জয় করতে এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নকে তরান্বিত করতেই শাসক দলের কৃষক সংগঠন ওই অভিনব কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বলে দাবি একাংশের। এদিন এই প্রসঙ্গে কিষাণ খেতমজুর সংগঠনের আলিপুরদুয়ার জেলা সভাপতি প্রসেনজিৎ রায় বলেন, “লোকসভা ভোটে আমরা হারলেও আমাদের ভোট কিন্তু বেড়েছে ৭ শতাংশ। ভোট বাড়লেও আমরা হেরেছি বামেদের ভোট রামের বাক্সে যাওয়াতে। অথচ আমাদের সরকার বা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে যে বিপুল পরিমাণে উন্নয়নমূলক কাজ করে চলেছেন তাতে এরকম ফল হওয়ার কথা ছিল না। তাই জনসংযোগের লক্ষ্যে আগাছা পরিস্কার অভিযান দিয়ে ও দিদিকে বলো কর্মসূচির মাধ্যমে আমরা কৃষকদের সমস্যা কোথায় তা বুঝতে চাইছি।”

জানা গেছে, এই জেলায় শাসক দলের কৃষক সেলের সদস্য ৩১ হাজারের বেশি রয়েছে। শাসক দলের কৃষক সেলের সদস্যরা ইতিমধ্যেই মাদারিহাট ব্লকের বল্লালগুড়ি-টোটোপাড়া, খয়েরবাড়ি, রাঙালিবাজনা, ফালাকাটার ময়রারডাঙা, ছোট শালকুমার, ফালাকাটা-২ এবং আলিপুরদুয়ার-১ ব্লকের শালকুমার-১ ও ২ এই আটটি পঞ্চায়েত এলাকায় ৫০০ একর আমন খেতের আগাছা পরিস্কার করে দিয়েছেন। আর এতে আমন চাষিরাও প্রবল খুশি।

এদিকে আমন খেতের আগাছা পরিস্কারের সঙ্গে দিদিকে বলো কর্মসূচিও চলতে দিদিকে বলো’র ফোন নম্বর লেখা কার্ড দিয়ে তা বিলি করছেন শাসক দলের কৃষক সেলের কর্মীরা। আলু রাখার জন্য হিমঘর, আলুর বন্ড পাওয়া, রাসায়নিক সার ও সেচসহ কোনও সমস্যা থাকলে কৃষকদের ওই নম্বরে ফোন করারও পরামর্শও দেওয়া হচ্ছে।

এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা সভাপতি মৃদুল গোস্বামী বলেন, “দলের কৃষক সেলের এই কর্মসূচিতে জেলায় ব্যাপক সাড়া পড়েছে। এজন্য কৃষক সেলের নেতৃত্বকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।” সব মিলিয়ে কৃষকদের আরও বেশি কাছে পৌছতে অভিনব উদ্যোগ তৃনমূলের কৃষক সেলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!