এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > বিজেপিকে হারাতে তৃণমূল নেতাদেরও ভরসা সেই “জয় শ্রীরাম” ধ্বনিতে, ভোটপ্রচারে বাড়ছে গুঞ্জন

বিজেপিকে হারাতে তৃণমূল নেতাদেরও ভরসা সেই “জয় শ্রীরাম” ধ্বনিতে, ভোটপ্রচারে বাড়ছে গুঞ্জন

বিগত বছরে রামনবমীকে ঘিরে অস্ত্র মিছিলের ঘটনায় শাসক বনাম বিরোধীর তীব্র বাদানুবাদে উত্তপ্ত হয়েছিল রাজ্য রাজনীতি। কিন্তু এবার লোকসভা নির্বাচনের মরসুমে সেই রামনবমীকেই হাতিয়ার করে জোর প্রচারে নেমে পড়েছে তৃণমূল এবং বিজেপি। বস্তুত, গতবার রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল যে রামনবমীর মিছিল বার করা নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে বিষোদগার করেছিল, এবার সেই তৃণমূলেরই নেতাদের রামনবমীর মিছিলের শোভাযাত্রার প্রথম সারিতে হাটতে দেখা গেল। সূত্রের খবর, দুর্গাপুর পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর রাখি তিওয়ারি এদিন নিজের ওয়ার্ডের বেশ কিছু দলীয় নেতাকর্মীকে নিয়ে রামনবমীর মিছিল করেন।

যেখানে গেরুয়া জামা পরা তৃনমূলের কর্মী-সমর্থকরা মাঝে মাঝেই আওয়াজ তুলতে থাকেন “জয় শ্রীরাম” বলে। এদিকে হঠাৎ এহেন মিছিল দেখে হতবাক হয়ে যান এলাকাবাসীরাও। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলে বিভিন্ন ভাষাভাষীর লোকজনের বসবাস হওয়ায় এবারের নির্বাচনে এখানে রামনবমীর যে অন্যতম নির্ণায়ক শক্তি হতে চলেছে সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত প্রায় প্রত্যেকেই। আর এতদিন বিজেপির পক্ষ থেকে সেই রামনবমী পালন করা হলে এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে এখানে সেই রামনবমী উপলক্ষে শোভাযাত্রা বের করে সেই সমস্ত ভাষাভাষির লোকেদের নিজেদের দিকে টানতে মরিয়া চেষ্টা করল তৃণমূল বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

আর দুর্গাপুর পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর যেভাবে নেতা-কর্মীদের নিয়ে গেরুয়া ঝান্ডা হাতে ধরে জয় শ্রীরাম স্লোগান দিচ্ছেন তাতে বিজেপি অনেকটাই চাপে পড়ে গেল বলে মত শাসকদলের। কেননা এতদিন যে বিজেপির বিরুদ্ধে রামনবমীর শোভাযাত্রার করার অভিযোগ তুলত তৃনমূল, এদিন সেই বিজেপির পথেই হেঁটে তারা সেই শোভাযাত্রা করে আদতে বিজেপির ভোটব্যাঙ্কেই থাবা বসাতে চাইল বলে মত বিশেষজ্ঞদের। কিন্তু, দুর্গাপুরবাসী এই প্রসঙ্গে পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিচ্ছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের। তাঁদের প্রশ্ন, এতদিন রামনবমী পালন করা নিয়ে বা রামকে নিয়ে ‘রাজনীতি’ করার জন্য বিজেপিকে তুলোধোনা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাহলে এখন ভোটের মুখে এসে কেন সেই ‘রামকে নিয়ে রাজনীতি’ করতে হচ্ছে তৃণমূলকে?

হঠাৎ করে এই রামনবমীর মিছিল কেন? এদিন এই প্রসঙ্গে দুর্গাপুর পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর রাখি তেওয়ারি বলেন, “ভগবান কোনো নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের নয়, উনি সবার। আমিও রামনবমী উপলক্ষে উপোস করি। তাহলে শোভাযাত্রা করতে পারব না কেন? দলের পক্ষ থেকেই এই শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে।” অন্যদিকে এই ব্যাপারে পাল্টা তৃণমূলকে খোঁচা দিয়েছে বিজেপি। এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা বিজেপির সভাপতি লক্ষণ ঘোড়ুই বলেন, “তৃনমুল দিশেহারা হয়েই এসব করছে। এভাবে ওরা হিন্দুদের ভোটকে কোনোমতেই টানতে পারবে না।” অন্যদিকে তৃণমূল এবং বিজেপি একই সুতোয় বাঁধা বলে অভিযোগ করেছেন দুর্গাপুরের সিপিএম নেতা পঙ্কজ রায়। সবমিলিয়ে বাংলার রাজনীতিও কি ক্রমশ রাম-নির্ভর হয়ে পড়ছে – সব কিছু দেখে শুনে এমনটাই জল্পনা রাজনৈতিক মহলে।

Top
error: Content is protected !!