এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > তৃণমূল কাউন্সিলরদের এবার নতুন করে রাজনীতির পাঠ দেবেন মমতা? জল্পনা দলের অন্দরেই

তৃণমূল কাউন্সিলরদের এবার নতুন করে রাজনীতির পাঠ দেবেন মমতা? জল্পনা দলের অন্দরেই

লোকসভা নির্বাচনে এবার তৃণমূল নেত্রীর স্লোগান ছিল 42 এ 42। কিন্তু বাস্তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই স্লোগানতো পূর্ণ হয়ইনি, উল্টে 34 থেকে নেমে 22 টি আসনেই থেমে যেতে হয়েছে তৃণমূলকে। অন্যদিকে 2 থেকে বাড়িয়ে বিজেপি বাংলায় তাদের আসন সংখ্যা 18 করে নিয়েছে। আর রাজ্যের নিজের দলের ব্যাপক ভরাডুবি এবং বিজেপির এই প্রবল উত্থানে কিছুটা হলেও এখন চিন্তিত তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই ফলাফল পর্যালোচনায় বৈঠকে বিভিন্ন জেলার সংগঠনে পরিবর্তন এনেছেন তিনি।

পাশাপাশি দলের নেতাদের আরও বেশি করে জনসংযোগ করারও নির্দেশ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এত সবচেয়ে সত্ত্বেও রাজ্যের শাসক দলের অন্দরে যে ভাঙ্গন তৈরি হয়েছে তা কিছুতেই রোধ করা যাচ্ছে না। আর এই নির্বাচনের ফলাফলের পরই রাজ্যের একাধিক পৌরসভার তৃণমূলের কাউন্সিলররা বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেছেন। যার জেরে ভাটপাড়া পৌরসভা এখন বিজেপির দখলে।

অন্যদিকে হালিশহর পৌরসভাও নিয়ন্ত্রণ করছে গেরুয়া শিবির। পাশাপাশি রাজ্যে আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনগুলির দিকেও পাখির চোখ রেখেছে বিজেপি। বস্তুত, এবার রাজ্যের বিভিন্ন পৌরসভায় লোকসভা ভোটের ফলাফল পর্যালোচনা করলে বিজেপি অনেকটাই এগিয়ে আছে বলে দেখা গেছে। যা চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে তৃণমূলের নেতা নেত্রীদের কপালে। আর এই একটা পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে এবার আগামী 18 জুন নজরুল মঞ্চে বেলা 11 থেকে রাজ্যের ছটি পুরনিগম এবং 125 টি পুরসভার প্রায় তিন হাজারের মতো দলীয় কাউন্সিলরদের নিয়ে কর্মশালা করার সিদ্ধান্ত নিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, লোকসভা নির্বাচনে অনেক জায়গায় কাউন্সিলরদের জনসংযোগের অভাব এবং তাদের দৈনন্দিন লাইফস্টাইল ও আচার-আচরণ নিয়ে দলের একাংশ প্রশ্ন তুলেছেন। এমনকি সাধারণ মানুষও তৃণমূলের কাউন্সিলরদের প্রতি ক্ষুব্ধ। যার প্রভাব ভোটবাক্সে পড়েছে। আর তাই সামনের পৌরসভা নির্বাচনের আগে দলের ভাবমূর্তি স্বচ্ছ রাখতে কিভাবে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছতে হবে, তা নিয়েই কাউন্সিলরদের এই কর্মশালায় বার্তা দিতে চান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

যদিও বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে দলের কাউন্সিলরদের এই বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করা হলেও তাতে কিছুই লাভ হবে না বলে দাবি করেছে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের দাবি, তৃণমূল দলটাই এখন কাঠমানি নিয়ে চলছে। লোকসভা নির্বাচনে যার প্রভাব ভোটবাক্সে পড়ায় এখন হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাই তো নিজের দুর্গ রক্ষা করতে দলীয় কাউন্সিলরদের বার্তা দিতে চাইলেও এখন সকলে তৃণমূলের ঘর ছেড়ে পদ্ম শিবিরে নাম লেখাতে চাইছেন।

তবে বিজেপি তাদের রাজনৈতিক অবস্থানের নিরিখে শাসক দল তৃণমূলকে এই ব্যাপারে কটাক্ষ করলেও শেষ পর্যন্ত দলীয় কাউন্সিলরদের নিয়ে কর্মশালায় তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক কী বার্তা দেন, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!