এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > তৃণমূলের ডাকা ব্রিগেড সমাবেশে থাকছেন কি কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বে? কি জানালেন সোমেন মিত্র

তৃণমূলের ডাকা ব্রিগেড সমাবেশে থাকছেন কি কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বে? কি জানালেন সোমেন মিত্র

লোকসভা ভোটকে টার্গেট করে দেশের সমস্ত বিজেপিবিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে এক ছাতার তলায় আনার জন্যে ১৯ জানুয়ারী বৃহত্তর ব্রিগেড সমাবেশের ডাক বেশ কয়েক মাস আগেই দিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিভিন্ন অবিজেপি রাজনৈতিক দলের শীর্ষকর্তারা বাংলার নেত্রীর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়েছেন। তবে জাতীয় কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুল গান্ধী এই সমাবেশে উপস্থিত থাকবেন কিনা সেটাই এখনো পরিস্কার হল না প্রদেশ কংগ্রেসের।

কারণ রাহুলের তরফ থেকে এখনো সোমেন মিত্রকে এ বিষয়ে কিছুই স্পষ্ট করে জানানো হয়নি। তবে সোমেন মিত্র,অধীর চৌধুরীরা চান না রাহুল তৃণমূল সুপ্রিমোর আমন্ত্রণ স্বীকার করে এই বিগ্রেড সমাবেশে অংশগ্রহণ করুক। এই আবেদনই বৈঠকে সোমেন মিত্র তাঁদের দলের হাইকমান্ডারকে জানিয়ে দিয়েছেন। তবে রাহুল গান্ধী এ ব্যাপারে কী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেটা এখনো স্পষ্ট করে জানালেন না। এ ব্যাপারে কী হবে জাতীয় কংগ্রেস সুপ্রিমোর সিদ্ধান্ত তা নিয়ে দলের অন্দরেই চর্চা শুরু হয়েছে। তবে স্বাভাবিকভাবেই রাহুল গান্ধীর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে,এমনটাই বৈঠকের পর জানিয়ে দিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি।

তৃণমূলের ডাকা বিজেপি বিরোধী বৃহত্তর সমাবেশে আসার জন্য রাহুল নিজের সিদ্ধান্ত না জানালেও ফেব্রুয়ারিতে কোলকাতার দলীয় সমাবেশে আসার জন্যে প্রদেশ কংগ্রেসের তরফ থেকে রাহুল গান্ধীকে আমন্ত্রণ জানিয়ে রাখা হয়েছে। শিমলা সফর থেকে ফিরে প্রদেশ কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বদের সঙ্গে এক প্রস্থ বৈঠকে বসেছিলেন রাহুল। সেখানে সাংগঠনিক শক্তি মজবুত করার আলোচনার পাশাপাশি লোকসভা ভোটের জন্যে দলীয় স্ট্রাটেজি নিয়েও পর্যালোচনা হয়।

সেখানেই সোমেন মিত্র তাঁদের ফেব্রুয়ারি মাসের রাজ্যসরকারের বিরুদ্ধে আইন অমান্য ও জেলে ভরো কর্মসূচিতে রাহুল গান্ধীকে আমন্ত্রণ জানান। পাশাপাশি একই মাসে কোলকাতায় ব্রিগেড বা অন্য কোথাও বড় সমাবেশ করারও কিছু পরিকল্পনা রয়েছে প্রদেশ কংগ্রেসের। সেসব গুলোতে উপস্থিত থাকার জন্য রাহুল গান্ধীকে আগাম আমন্ত্রণ জানিয়ে রাখলেন সোমেন মিত্র।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রদেশ কংগ্রেসের দলীয় কর্মসূচিতে রাহুল গান্ধী উপস্থিত থাকবেন এতে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে তিনি সাড়া দেবেন কিনা সেটা নিয়ে এখনো নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন না তিনি। ফেডারেল ফ্রন্ট গঠনের ডাক যখন বঙ্গের নেত্রী দিয়েছিলেন তখন তাতে রাহুল গান্ধীর পূর্ণ সমর্থনের কথা তিনি প্রকাশ্যেই জানিয়েছিলেন। বিজেপি বিরোধী জোটের মুখ হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই মেনে নিয়েছিলেন তিনি। এমনটা জল্পনাও শুরু হয়েছিলো,লোকসভার ভোট বৈতরণী মমতার হাত ধরেই পার হতে চান রাহুল। তাহলে কেন নেত্রীর বিজেপি বিরোধী ব্রিগ্রেড সমাবেশে যোগ দেবেন কিনা সেটা এখনো স্পষ্ট করলেন না তিনি? এ নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়।

পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটে ভালো ফলাফল কি রাহুল গান্ধীকে দ্বন্দ্বে ফেলে দিল? এ প্রশ্নকে ঘিরেও চর্চা শুরু হয়েছে রাজনৈতিকমহলে। দলীয় অন্দরের খবর,প্রদেশ কংগ্রেস একা লড়বে না কোনো দলের সঙ্গে সমঝোতায় আসবে সেটা আগে সোমেন মিত্রদেরই ঠিক করার কথা জানিয়েছেন তিনি। তারপরই এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে,এমনটাই বক্তব্য রাহুল গান্ধীর।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!