এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা সমাবেশকে ঘিরে প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা সমাবেশকে ঘিরে প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

.রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোটের সময় যত নিকটে আসছে ততই দিন দিন গরম হচ্ছে তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল।  তৃণমূলের অন্তরে দুটি বিভাজনের সীমারেখা দিন দিন প্রকট থেকে প্রকটতর হচ্ছে। শনিবার কোচবিহারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে আফরাজুল হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ডাকা সমাবেশকে ঘিরে অনাবৃত ভাবেই চলে তৃণমূলের সেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব।এদিন কোচবিহারে প্রায় একই সময়ে দুটি আলাদা আলাদা মিছিল করে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সদস্যরা।
এ দিন বেলা সাড়ে ৩ টে নাগাদ কোচবিহারের রাসমেলা ময়দানে মিছিল করেন জেলা যুব সভাপতি অর্ঘ্য রায়প্রধান এবং তার তার সমর্থকেরা।তার সঙ্গে সমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন কোচবিহারের সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়। এরই পাশাপাশি ময়দান থেকে দু’ কিলোমিটার দূরে গুঞ্জবাড়িতে মিছিল করেন দলের যুব নেতা হিসেবে পরিচিত অভিজিৎ দে ভৌমিক এবং তার অনুগামীরা।অর্ঘবাবু মিছিলে বলেন আফরাজুল হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে সরব হবার জন্যই রাজ্য সরকারের আদেশে যুব তৃণমূল সংগঠনের পক্ষ থেকে তারা এই সমাবেশের আয়োজন করেছে।পাশাপাশি তিনি দাবী করে বলেন যে শহরের আর কোথায় সভার কোনো আয়োজন হয়েছে কিনা তা তার জানা নেই।উল্টো দিকে অভিজিৎবাবু বলেন, “অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে মিছিল হয়। যে যেখান থেকে পারে প্রতিবাদে সামিল হয়েছে। অন্য কোনও ব্যাপার নেই।” পার্থপ্রতিম রায় বলেন, “যুব নেতৃত্বের আমন্ত্রণে মিছিলে যোগ দিয়েছি।
দলের একাংশের মতে পঞ্চায়েত নির্বাচনের পূর্ব মুহূর্তে নিজেদের আখের গুছিয়ে নেবার জন্য সব তৃণমূল কর্তৃপক্ষই রত।এই চরম মুহূর্তে প্রত্যেক নেতৃত্ব একে অন্যের মই কেড়ে নিতে ব্যস্ত।পঞ্চায়েত ভোটের আগে ভোটের টিকিট কার ঝুলিতে যাবে তা দেখার জন্য সবাই আগ্রহী।তবে রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য নেত্রীকে এই দিকে এবার নজর দিতে হবে।
আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!