এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > বুথ ফেরত সমীক্ষার ফল দেখে, মুখ খুললেন মেদিনীপুরের তৃণমূল প্রার্থী মানস ভূঁইয়া

বুথ ফেরত সমীক্ষার ফল দেখে, মুখ খুললেন মেদিনীপুরের তৃণমূল প্রার্থী মানস ভূঁইয়া

গতবার সন্ধ্যা রায়ের পর এবার মেদিনীপুরে ঘাসফুল ফোটাতে মানস ভূঁইয়াকে প্রার্থী করেছিল। কিন্তু বিজেপির পক্ষ থেকে সেই মানসবাবুর বিরুদ্ধে প্রার্থী করে দেওয়া হয় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। আর এতেই জমে ওঠে লড়াই। কি হবে ফলাফল, তা জানা যাবে আগামীকাল ভোটবাক্স খোলার পরই।

তবে তার আগে গত রবিবার সপ্তম তথা শেষ দফার লোকসভা নির্বাচন সমাপ্ত হওয়ার পরই একের পর এক সমীক্ষক সংস্থা তাদের সমীক্ষা প্রকাশ করতে শুরু করে। যেখানে দেখা যায় মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী মানস ভুঁইয়া পরাজিত হতে চলেছেন। যদিও বা প্রথম থেকেই এই বুথ ফেরত সমীক্ষাকে তিনি বিশ্বাস করেন না বলে জানিয়ে দেন তৃনমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এবার এই বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন সেই মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মানস ভুঁইয়া।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন তিনি বলেন, “একটা অপপ্রচার কয়েক দিন ধরে চালানো হচ্ছে। গত 2011 সাল ও 2016 সালে কয়েকটা চ্যানেল আমাকে হারিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু আমি জিতেছি। আমার মনে হয় হারিয়ে দেওয়ার খবরটা আমার কাছে মাঝে মাঝে আশীর্বাদ হয়ে আসে। আমি অনেক পুঙ্খানুপুঙ্খ বিচার, বিশ্লেষণ করে ও দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে এতটুকু নিশ্চিত হয়েছি যে মেদিনীপুরে তৃণমূলের পতাকা নিয়ে ডাক্তার মানস ভুইয়া জিতবে, জিতবে, জিতবেই।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, নেত্রীর পথে হেটেই তিনি এই সমীক্ষায় বিশ্বাস করেন না বলে নিজের জয়ের ব্যাপারে প্রবল আত্মবিশ্বাসী ভূমিকায় দেখা গেল মেদিনীপুরের তৃণমূল প্রার্থীকে। তবে শেষ পর্যন্ত গণনা কেন্দ্রে তিনি তার আত্মবিশ্বাস ধরে রাখতে সক্ষম হন, নাকি এই মেদিনীপুর পদ্ম ফোটে! এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!