এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > হাতে ১৫ টাকা নিয়ে মনোনয়ন জমা তৃণমূল প্রার্থীর, বিতর্কের ঝড় রাজ্যে

হাতে ১৫ টাকা নিয়ে মনোনয়ন জমা তৃণমূল প্রার্থীর, বিতর্কের ঝড় রাজ্যে

Priyo Bandhu Media

নির্বাচন কমিশন নির্দেশ অনুযায়ী, প্রত্যেক প্রার্থীকে সম্পত্তির খতিয়ান (স্বামী বা স্ত্রীর সমেত) পেশ করতে হয়। আর সেই মতো এদিন চুঁচুড়ার প্রশাসনিক দফতরে আরামবাগের তৃণমূল প্রার্থী অপরূপা পোদ্দারের মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দাখিল করা হলো হলফনামা। আর সেখানেই চমকে দিয়ে তিনি দাবি করেছেন যে তাঁর ও তাঁর স্বামীর হাতে থাকা টাকার পরিমান হলো ১৫। ঠিকই পড়ছেন শুধুমাত্র ১৫ টাকা।

আর এই নিয়েই বিরোধীদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হচ্ছে তাঁদের। বিরোধীদের প্রশ্ন ১৫ টাকায় ওঁদের সংসার চলেছিল কিভাবে? শুধু তাই নয়, নারোদার টাকা কোথায় গেলো?মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার টাকা কে দিল?

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এই সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন তাঁর স্বামী। তিনি দাবি করেছেন যে, , ‘‘আমার এবং অপরূপার ব্যবসা রয়েছে। ফলে, টাকা থাকবে না কেন? আসলে মনোনয়নপত্র যখন পূরণ হচ্ছিল, তখন আমাদের দু’জনের কাছে মাত্র ১৫ টাকাই ছিল। মিথ্যা লিখতে যাব কেন! এটা নিয়ে চর্চারই বা কী আছে? এখন কেনাকাটা মোবাইলেই করি। কেন্দ্র সরকারই তো ডিজিটাল লেনদেনে জোর দিচ্ছে। হাতে টাকা রাখার কী দরকার!’’

তবে অপরূপা দেবীর দাখিল করা হলফনামায় তাঁর এবং স্বামীর হাতে মোট ১৫ টাকা থাকলেও ব্যাঙ্কে গচ্ছিত টাকা থেকে গয়নাগাটি রয়েছে দু’জনেরই সে কথা বলা হয়েছে আর সাথেই তাদের দামি গাড়ি, মোটরবাইকের কটাও বলা হয়েছে । প্রসঙ্গত, অপরূপা দেবীর স্বামী সাকির রিষড়া পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলর।

তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের দাবি যে ১৫ টাকার কথা বলে চমক দিতেই এই কাজ করেছেন তৃণমূল প্রার্থী।এখন ভোটার বাক্স খোলার পরেই বোঝা যাবে কোন প্রার্থী আসল চমক দিলো। এখন শুধু অপেক্ষা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!