এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > তৃনমূল নয়, এবার বিজেপি নেতাদের তদন্তে না ডাকা নিয়ে সরব বিজেপি ঘনিষ্ঠ এই রাজনৈতিক দল

তৃনমূল নয়, এবার বিজেপি নেতাদের তদন্তে না ডাকা নিয়ে সরব বিজেপি ঘনিষ্ঠ এই রাজনৈতিক দল

সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত পর্ব মিটে যাওয়ার সাথে সাথেই সারদা, নারদা সহ বিভিন্ন চিটফান্ড ইস্যুতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে দেখা গেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইকে। ইতিমধ্যেই তৃণমূলের একাধিক সাংসদকে জেরার জন্য ডেকে পাঠিয়েছে সিবিআই।

আর যে ঘটনায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সিবিআইকে ব্যবহার করার অভিযোগ তুলেছেন রাজ্যের শাসকদলের নেতা মন্ত্রীরা। তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও বরাবরই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এরকম অভিযোগ জানাতে দেখা গেছে তৃণমূলকে। কিন্তু এবার আর তৃণমূল নয়, কেন বিজেপি নেতারা দুর্নীতিতে জড়িত থাকলেও তাদেরকে তদন্তের জন্য ডাকা হচ্ছে না, তা নিয়ে সরব হতে দেখা গেল শিবসেনাকে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

বস্তুত, গত শনিবার ডানকুনিতে শিবসেনার দুই দিনের রাজ্য কমিটির বৈঠক সমাপ্ত হয়েছে। আর এই বৈঠকেই জাতীয় রাজনীতির পাশাপাশি রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয়। যেখানে রাজ্যে সারদা, নারদা, রোজভ্যালির মত চিটফান্ড কাণ্ডে তৃণমূল নেতাদের ডাকা হলেও কেন এই চিটফান্ডে যুক্ত বিজেপি নেতাদের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ডাকছে না, তা নিয়ে সিবিআইকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে দেখা যায় শিবসেনার রাজ্য সভাপতি শান্তি দত্তকে।আর এতেই চরম বিপাকে পড়েছে গেরুয়া শিবির বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

কেননা এতদিন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস সিবিআইকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করার জন্য বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হত। কিন্তু তৃণমূল থেকে বিজেপি তে যাওয়া দুর্নীতিতে নাম জড়ানো মুকুল রায়, শঙ্কুদেব পণ্ডাকে কেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ডাকছে না, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা গিয়েছিল তৃণমূলকে।

আর এবার কোনো নেতার নাম না করে বিজেপির অনেক নেতাও দুর্নীতিতে জড়িত আছে। কিন্তু তাদের কেন ডাকা হচ্ছে না! সেই ব্যাপারে প্রশ্ন তুলে দিয়ে পরোক্ষে গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে কটাক্ষ ছুড়ে দিল শিবসেনা। যা তৃনমূলকে বাড়তি অক্সিজেন পাইয়ে দিলেও বিজেপিকে কিছুটা অস্বস্তিতে ফেলে দিল বলে মত বিশ্লেষকদের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!