এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ফের একবার বিজেপিকে সভা না করতে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো তৃণমূলের বিরুদ্ধে

ফের একবার বিজেপিকে সভা না করতে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো তৃণমূলের বিরুদ্ধে

আজ ডেবরার পথের সাথী নামে সরকারি হলে বিজেপির সভা করার কথা ছিল। সেইমতো নাকি বুকিং করা হয়েছিল টাকা দিয়ে দাবি বিজেপির। কিন্তু কর্মীদের হুমকি,হলের জল, বিদ্যুৎ বন্ধ করে দেওয়া ও সভা বানচাল করার অভিযোগ উঠলো তৃণমূলের বিরুদ্ধে। হলের মধ্যেই দলীয় সব আকারের জন্য আগে থেকে বুকিং করা হয়েছিল বিজেপির তরফ থেকে। ব্যাবস্থা করা হয়েছিল পর্যাপ্ত জল ও মধ্যাহ্নভোজনের। আর সেই মতো সকাল থেকেই বিজেপি কর্মী-সমর্থক সেখানে পৌঁছায়। অভিযোগ শাসকদল হুমকি দিয়ে সরাসরি সভা বন্ধ করতে বলে। বিজেপি কর্মীরা তা না মানায় জল, বিদ্যুৎ বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর মাজে সভা করতে আসেন দিলীপ ঘোষ। তিনি আসার পর হল কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, “এখানে সভা করা যাবে না।” ফলে বাইরে ত্রিপল খাটিয়ে সভার আয়োজন করা হয় ও সভা করা হয়।পাশাপাশি বাইরে থেকে নিয়ে আসা হয় জল এবং শুরু হয় সভা।এই নিয়ে দিলীপবাবু বলেন, “পথের সাথী সরকারি ভবন। আমরা টাকা দিয়ে হল বুক করেছিলাম। কিন্তু, পথের সাথীর কর্মচারীদের ও আমাদের কর্মীদের তৃণমূল কর্মীরা হুমকি হুমকি দিয়েছে। এমনকী, হলের জল ও বিদ্যুৎ পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছে। বাধ্য হয়ে, হলের বাইরে ত্রিপল খাটিয়ে সভা করি।”এদিন তিনি তৃণমূলের বিরুদ্ধে সমস্ত ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। তৃণমূলকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, “ওরা সরকারি সম্পত্তিকে পার্টির সম্পত্তি বলে মনে করছে। তাই, এই গরমেও কর্মীদের নিয়ে হলের বাইরে সভা করতে হল। ওদের খাবারও দিতে পারলাম না। বিজেপি মাটিতে বসে সভা করেছে। কারণ, বিজেপি মাটিতে আছে। আর এই মাটি থেকেই উঠে দাঁড়াবে।” তবে এই নিয়ে মুখ খোলেনি হল কতৃপক্ষ। অন্যদিকে তৃণমূলের তরফ থেকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!